কালীপুজো উপলক্ষেও কিছু স্পেশাল ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নিলো রেল কর্তৃপক্ষ

6
কালীপুজো উপলক্ষেও কিছু স্পেশাল ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নিলো রেল কর্তৃপক্ষ

লকডাউনের পরে এই প্রথম বাংলার সব পূজোই বেশ ধুম ধাম করে পালিত হচ্ছে। ভীড়ও হচ্ছে দেখার মতোন। কিছুদিন আগেই আমাদের সকলের প্রিয় উৎসব দুর্গোৎসব গেছে। ভিড় সামলানোর জন্য প্রশাসন যথেষ্ট ভালো কাজ করেছেন। দর্শনার্থীদের যাওয়া আসায় যাতে সমস্যা না হয় তার জন্য রেল কর্তৃপক্ষ বেশ কিছু ট্রেনও বাড়ায়।

আর ঠিক তেমনই সামনে আসতে চলে আলোর উৎসব দীপাবলী। বিশেষ করে বারাসাত মদ্ধমগ্রম এই জায়গা গুলোয় কালীপূজা বিখ্যাত। আর তাই এই জায়গা গুলোয় সব দিক থেকেই ভিড় বেশি হবে। তাই জানা যাচ্ছে পূর্ব রেল দফতর থেকে কালীপুজো উপলক্ষেও কিছু স্পেশাল ট্রেন দেওয়ার কথা বলা হয়েছে।

এই আলোর উৎসবের ভিড় সামলাতে মোট ৯ টি স্পেশাল ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেল। কালীপুজোর রাতে ও তারপরের দিন অর্থাৎ ২৪ অক্টোবর ও ২৫ অক্টোবর যথাক্রমে সোম ও মঙ্গলবার এই ২দিন স্পেশাল ট্রেনগুলি চলবে বলে জানানো হয়েছে। জানানো হয়েছে সবকটি স্টেশনেই এই লোকাল ট্রেনগুলি থামবে।

যাতে সারা রাতই প্রতিমা দর্শন করতে পারে তাই এই ব্যাবস্থা। শেয়ালদা মেন লাইনেও ট্রেন দেওয়া হয়েছে।
শিয়ালদা- বারাসত স্পেশাল লোকাল শিয়ালদা থেকে ছাড়বে রাত ১২টা বেজে ১০মিনিটে। অন্যদিকে বারাসত থেকে একটি ট্রেন শিয়ালদার উদ্দেশে ছাড়বে ১টা বেজে ১০মিনিটে।

শিয়ালদা- ডানকুনি শাখায় চালানো হবে একজোড়া স্পেশাল ট্রেন। একটি শিয়ালদা থেকে ছাড়বে রাত ১১টা বেজে ৩০ মিনিটে। অন্যদিকে অপরটি ডানকুনি থেকে ছাড়বে রাত ১২টা বেজে ২৫ মিনিটে।

শিয়ালদা- রাণাঘাট স্পেশাল লোকাল শিয়ালদা থেকে ছাড়বে রাত ১২ টা বেজে ৪০মিনিটে। আবার একটি ট্রেন রাণাঘাট থেকে ছাড়বে রাত ১১ টা বেজে ৪৫ মিনিটে।
এছাড়া, শিয়ালদা বারুইপুর একটি স্পেশাল লোকাল ট্রেন চালানো হচ্ছে। যেটি শিয়ালদা থেকে ছাড়বে বিকেল ৫টা বেজে ৩৫মিনিটে।
তাই যারা ভাবছেন গোটা রাত জুড়েই প্যান্ডেল হোপিং করবেন তারা নিশ্চিন্তে যেতে পারেন।