পার্স অথবা মানিব্যাগে যে জিনিস গুলি রাখলে হতে পারে অর্থকষ্ট! দেখে নিন

17
পার্স অথবা মানিব্যাগে যে জিনিস গুলি রাখলে হতে পারে অর্থকষ্ট! দেখে নিন

পার্স অথবা মানিব্যাগ প্রত্যেকটা মানুষের কাছে থেকে থাকে এবং সেই মধ্যে থাকে তাদের জীবনের সম্পদ, তবে অনেক সময় দেখা যায় যে মানিব্যাগে টাকা বেশি থাকে না অর্থাৎ ব্যাপারটি হলো মানিব্যাগে কিছু টাকা রাখলে সেটি মুহূর্তের মধ্যেই খরচ হয়ে যাওয়ারই অবস্থা হয়। মানিব্যাগে টাকা রাখলে সে টাকা বেশি দিন পর্যন্ত থাকে না তবে সেগুলোর ক্ষেত্রে অবশ্যই সেগুলো অশুভ বলেই মনে করা হয়। বাস্তু শাস্ত্র অনুযায়ী যদি পার্সে কিছু জিনিস থাকে তবে সে ক্ষেত্রে হতে পারে অর্থকষ্ট।

এই জিনিসগুলো থাকলে কখনোই আপনি সঞ্চয় করতে পারবেননা। এবার আসুন জেনেনি কি কি সেই জিনিস গুলো যেগুলো আপনার পার্সে বা মানিব্যাগে যদি রাখা হয় তাহলে আপনার অর্থকষ্ট অনিবার্য।

প্রথমেই হল ভগবানের ছবি। পার্সে কখনো কোনো ঈশ্বরের ছবি রাখবেন না এতে ঘৃণা বারে।

দ্বিতীয়তঃ চাবি অনেকেই পার্স অথবা মানিব্যাগে ঘরের চাবি অথবা লকারের চাবি রেখে থাকেন, কিন্তু এটা একদমই ঠিক নয়। বাস্তুশাস্ত্র অনুযায়ী পার্সে যদি কোন ধাতুর জিনিস থাকে তবে সে ক্ষেত্রে সেদিন নেতিবাচক ফল প্রদান করে ফলে অর্থকষ্ট থেকে যায়।

তৃতীয়তঃ হল কোন মৃত আত্মীয়দের ছবি কখনোই রাখা উচিত নয়। বাস্তুশাস্ত্র অনুযায়ী টাকা পয়সা হল মা লক্ষ্মী তাই মানিব্যাগে যদি মৃত কোন ব্যক্তির ছবি রাখা হয় তবে সেটি বাস্তুদোষ বলেই মনে করা হয়।

চতুর্থঃ হলো পুরনো বিল। পুরনো বিল কখনোই মানিব্যাগে রাখা উচিত না। বাস্তুশাস্ত্র অনুযায়ী সে ক্ষেত্রে আর্থিক ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

আর সব থেকে বড় ব্যাপার হল কখনোই পার্স বা মানিব্যাগে টাকা পয়সা একসাথে মিলেমিশে রাখবেন না এবং টাকাগুলি একেক ভাবে সাজিয়ে রাখবেন, যদি দশ টাকার নোট হয় তালে ১০ টাকার সারিতে যদি ১০০ টাকার নোট হয় তবে ১০০ টাকার সারিতে এরকম ভাবেই পরপর সাজিয়ে রাখা প্রয়োজন।

বলা হয় যে মা দেবী লক্ষ্মী চঞ্চল এবং তিনি কোন শব্দ পছন্দ করেন না, তাই পার্সে পয়সার কয়েন শব্দে মা লক্ষ্মী থাকে না। তাই চেষ্টা করুন যে পয়সা আর টাকা যেন আলাদা আলাদা ওয়ালেটে রাখা হয়।