ইউক্রেনে হামলার পর এবার ট্রোলিংয়ে বিদ্ধ পুতিনের মেয়ে!

11
ইউক্রেনে হামলার পর এবার ট্রোলিংয়ে বিদ্ধ পুতিনের মেয়ে!

ইউক্রেনে হামলার পর এবার ট্রোলিংয়ে বিদ্ধ ‘পুতিন-কন্যা’ লুইজা রোজোভার। রাশিয়ার এই অষ্টাদশীকে লক্ষ্য করে আজকাল ক্রমাগত গোলাবর্ষণ চলছে নেটমাধ্যমে। ভ্লাদিমির পুতিনের সেনারা ইউক্রেন আক্রমণের পর থেকেই ওই মেয়ের দিকে ধেয়ে আসছে ট্রোলিংয়ের বিষাক্ত তির। তবে আচমকাই ইনস্টাগ্রামে লুইজা রোজোভার অ্যাকাউন্টটি গায়েব হয়ে গিয়েছে।

তবে অনেকের দাবি, ট্রোলিংয়ে জেরবার হয়েই নিজের অ্যাকাউন্টটি সরিয়ে দিয়েছেন খোদ লুইজা। অনেকের দাবি, ওই অষ্টাদশীই পুতিনের মেয়ে। রাশিয়ার প্রেসিডেন্টের পরকীয়া সম্পর্কের জেরেই তাঁর জন্ম। রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে ওই অষ্টাদশীর ‘বাবা’-কে কাঠগড়ায় তুলে তাঁর দিকে কটাক্ষের তির ছোড়া চলছে। তা নাকি এতই বিষাক্ত যে বাধ্য হয়ে ইনস্টাগ্রামে নিজের অ্যাকাউন্ট ডিলিট করে দিয়েছেন লুইজা। নেটমাধ্যমে বেশ সক্রিয় সেন্ট পিটার্সবার্গের ছাত্রী লুইজা।

সেখানে প্রায়শই ছবি পোস্ট করতেন। কখনও তাঁকে দেখা গিয়েছে, ক্যাফেতে সময় কাটাচ্ছেন। কখনও বা ঘুরে বেড়াচ্ছেন প্যারিসে। অনেক সময় নিজের ফ্যাশন লেবেলের কাজ নিয়ে ব্যস্ত। ডিজে হিসাবেও চুটিয়ে উপভোগ করছেন।
এক সময় নিজের জীবনের খুঁটিনাটি শেয়ার করলেও হঠাৎই যেন তা কমে গিয়েছে। ইনস্টাগ্রামে লুইজার শেষ পোস্টটি ছিল প্রায় পাঁচ মাস আগেকার। ২০২১ সালের অক্টোবরে। অনেকেই সন্দিহান, পুতিনের চাপে পড়েই ইনস্টাগ্রামে যাতায়াত বন্ধ করেছেন লুইজা।

যদিও সেই অ্যাকাউন্টটি এই সে দিন পর্যন্তও দেখা যাচ্ছিল। তবে ইউক্রেনে পুতিনবাহিনীর হামলার পরই ইনস্টাগ্রামে লুইজার শেষ পোস্টের নীচে একের পর এক বিষাক্ত মন্তব্য ধেয়ে এসেছে।