পুজোতেও থাকতে পারে বৃষ্টির প্রভাব, বঙ্গোপসাগরে ফের নতুন করে নিম্নচাপের সম্ভাবনা

6
পুজোতেও থাকতে পারে বৃষ্টির প্রভাব, বঙ্গোপসাগরে ফের নতুন করে নিম্নচাপের সম্ভাবনা

শরৎ মানেই তো পেজা তুলোর মেঘের ভেলা, সাথে নীল আকাশ। কিন্তু এবার যে ২০২০ সেটাকে ভুলে গেলে চলবে কিভাবে? হয়ত মাঠে মাঠে দেখা গেছে কাশ ফুলের বাগান, কিন্তু তেমনভাবে পেজা তুলোর সাথে নীল আকাশের দেখা নেই। ইতিমধ্যে আবহাওয়া দপ্তর জানিয়ে দিয়েছে আগামী দিন গুলোতে বৃষ্টির সম্ভাবনার কথা। এদিকে আবার নতুন করে বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ তৈরী হওয়ার কথাও। তাই এখন বাঙ্গালীর মাথায় চিন্তার ছাপ। আজ সকাল থেকেই কলকাতার আকাশ মেঘাচ্ছন্ন। আর তার ফলেই রোদের দেখা পাওয়া যায় নি এখনও, কিন্তু সকাল থেকেই ভ্যাপসা গরম।

আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে বর্ষা এখনও বাংলা থেকে বিদায় নেয় নি, তাই বৃষ্টির সম্ভাবনা একেবারেই উড়িয়ে দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। যেটা নিয়েই চিন্তা ছিল সবার সেটাই এবার জানিয়ে দিল আবহাওয়া দপ্তর। পুজোতেও নাকি থাকবে বৃষ্টির প্রভাব। এদিকে নতুন করে বঙ্গোপসাগরে ফের নতুন করে নিম্নচাপের দেখা মিলবে যার ফলে ব্যাঘাত ঘটতে পারে রাজ্যে। এদিকে ১৬ থেকে ২০ পর্যন্ত উত্তরবঙ্গে বৃষ্টির পরিমাণ কম থাকলেও যে ২১ থেকে ২৬ পর্যন্ত বৃষ্টি বাড়বে সেটা জানিয়ে দিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর। এদিকে বাদ যাচ্ছে না দক্ষিণবঙ্গও। আর এই বৃষ্টি যে পুজোর কয়েকটা দিনই বেশী করে হবে সেটা স্পষ্ট করেছে তারা ২২, ২৩, ২৪ তারিখ।

আজ সকাল থেকে কলকাতার আকাশ মেঘাছন্ন স্বাভাবিক ভাবেই আর্দ্রতা জনিত অস্বস্তি ও ভ্যাপসা গরম। এদিকে কলকাতায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৫ ডিগ্রীর ঘরে যা কিনা স্বাভাবিকের থেকে ৩ ডিগ্রী বেশী, এদিকে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৫-২৬ ডিগ্রীর ঘরে। তাছাড়া রাজ্যের জলীয় বাষ্পের পরিমাণ অনেকটাই বেশী। তার ফলেই বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ ৯৫% এর ঘরে।