ক্রিউ সদস্যের তৎপরতায় রক্ষা বিমান দুর্ঘটনার হাত থেকে

4
ক্রিউ সদস্যের তৎপরতায় রক্ষা বিমান দুর্ঘটনার হাত থেকে

সম্প্রতি ময়নাগুড়িতে দুটি ট্রেনের ভয়াবহ সংঘর্ষে শিউরে উঠছে রাজ্যবাসী। এবার দুবাই বিমানবন্দরে ঘটে যাওয়া একটি ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে শিউরে উঠছে গোটা দুনিয়া। একই রানওয়েতে 5 মিনিটের ব্যবধানে দুটি বিমান টেক অফ করার কথা ছিল। এই বিমান দুটি ভারতের দিকে আসছিল। তবে বিমানবন্দরের এক ক্রিউ সদস্যের তৎপরতায় গিয়েছে। প্রথম বিমান টেক অফ করার মুহূর্তেই দেখা যায় তীব্রগতিতে পিছন থেকে আসছে দ্বিতীয় বিমান।

ওই একই রানওয়েতে দুটি বিমান প্রায় একই সঙ্গে অবতরণ করতে চলেছিল। যদিও শেষমেশ এটিসির নির্দেশে বিমান অবতরণ রোখা সম্ভব হয়েছে। আরব আমিরশাহির দ্য এয়ার অ্যাক্সিডেন্ট ইনভেস্টিগেশন সেক্টর গোটা বিষয়টির উপর নজর রেখেছে। দুবাই বিমানবন্দরের রানওয়ে নম্বর 30 আর এ দুবাই থেকে হায়দ্রাবাদ গামী বিমানের টেক অফের প্রক্রিয়া চলছিল। তখনই একজন বিমানকর্মী দেখতে পান পেছন থেকে দ্রুতগতিতে আরও একটি বিমান ধেয়ে আসছে।

এরপর এটিসি খবর পেয়ে মুহূর্তের মধ্যেই বিমানের টেক অফ রুখে দেয়। ধীরে ধীরে হায়দ্রাবাদগামী বিমানের গতি কমে যায়। বিমানবন্দরের ট্যাক্সি ওয়ে এন ফোরের দিক দিয়ে রানওয়ে থেকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয় দুবাই থেকে হায়দ্রাবাদগামী বিমানটিকে। এমিরেটসের বিমানে গন্তব্য ছিল বেঙ্গালুরু। তাকেই শেষমেষ টেক অফ করতে দেওয়া হয়। হায়দ্রাবাদগামী বিমানকে ট্যাক্সি ওয়েতে রাখা হয়। সম্পূর্ণ ঘটনায় হতাহতের কোনো খবর নেই বলে জানা গিয়েছে।

এভাবেই এক বড়সড় দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে দুটি বিমান। তবে একই রানওয়েতে 5 মিনিটের ব্যবধানে কিভাবে দুটি বিমান পরপর চলে আসে সেই নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। প্রাথমিক তদন্ত করে জানানো হয়েছে হায়দ্রাবাদগামী বিমান রানওয়ে ক্লিয়ারেন্স ছাড়াই ঢুকে পড়ে রানওয়েতে। সেই কারণে এক মারাত্মক দুর্ঘটনা ঘটতে যাচ্ছিল।