দেশের বিভিন্ন রাজ্যে ভ্যাকসিন নষ্ট হওয়া নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি

14
দেশের বিভিন্ন রাজ্যে ভ্যাকসিন নষ্ট হওয়া নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি

সমগ্র দেশের সব নাগরিকদের দেওয়ার মতো উপযুক্ত ভ্যাকসিন এখনো ভারতের হাতে নেই। ভ্যাকসিনের যোগান দিতে হিমশিম খাচ্ছে ভ্যাকসিন প্রস্তুতকারক সংস্থাগুলি। অথচ দেশের বিভিন্ন রাজ্যে প্রচুর ভ্যাকসিন নষ্ট হওয়ার খবর পাওয়া যাচ্ছে। এই খবর পেয়ে স্বভাবতই বেশ অসন্তুষ্ট প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ভ্যাকসিনের অপচয় রুখতে কেন্দ্রের শীর্ষ আধিকারিকদের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

ভ্যাকসিন সম্পর্কে আলোচনা করার জন্য সম্প্রতি রাজনাথ সিং, অমিত শাহ, নির্মলা সীতারামন সহ অন্যান্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদের সঙ্গে একটি বিশেষ বৈঠকে বসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সেখানেই কেন্দ্রের শীর্ষ অধিকর্তারা প্রধানমন্ত্রীকে জানান, বর্তমানে দেশের মোট ভ্যাকসিনের অন্ততপক্ষে ৬% ভ্যাকসিন নষ্ট হচ্ছে। এরপরেই প্রধানমন্ত্রী জানিয়ে দেন যে এই মুহূর্তে ভ্যাকসিন যেন কোনোভাবেই নষ্ট না হয়।

এদিনের এই বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, এই বছরের মধ্যেই টিকাকরন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে ফেলতে হবে। আগামী দুই মাসের মধ্যেই দৈনিক ১ কোটি টিকাকরণ করতে হবে বলে জানিয়ে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তাই এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে কোনো টিকা যেন নষ্ট না হয়, এই মর্মে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কেন্দ্রের তরফ থেকে এও জানানো হয়েছে যে, সারা দেশের প্রায় ২৩ কোটি মানুষ ইতিমধ্যেই ভ্যাকসিনের একটি ডোজ পেয়ে গিয়েছেন।

তবে, দেশের বেশ কিছু রাজ্যে ভ্যাকসিন নষ্ট হওয়ার খবর পাওয়া যাচ্ছে। কিছু কিছু রাজ্যে ৩০ শতাংশেরও বেশি ভ্যাকসিন নষ্ট হওয়ার খবর মিলেছে। যে রাজ্যগুলির বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ উঠেছে সেই রাজ্যের দাবি, ডেটায় গরমিল রয়েছে। করোনার ভ্যাকসিন নষ্ট হওয়ার আপডেটে যে পরিসংখ্যান তুলে ধরা হয়েছে তার হিসেব ঠিক নয়।