অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার পরেও ফের গর্ভধারণ! জমজ সন্তানের জন্ম দিলেন তরুণীর

10
অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার পরেও ফের গর্ভধারণ! জমজ সন্তানের জন্ম দিলেন তরুণীর

আমাদের এই পৃথিবীতে অনেক কিছুই ঘটে যা আমাদের কাছে কিছুটা হলেও অবিশ্বাস্য লাগে। এমন কিছু ঘটনা ঘটে যার আক্ষরিক অর্থে কোনো ব্যাখ্যা পাওয়া যায় না। এরকম সত্যি ঘটনা ঘটেছে এক তরুণীর সঙ্গে। তরুণী আচমকাই আবিষ্কার করেছেন যে, তিনি গর্ভধারণ করেছেন। এমন একটি খবর পেয়ে তার স্বামীও রীতিমত হতভম্ব হয়ে যান। আলাদা করে অবিশ্বাস্য হবার কোন কারণ না থাকলেও এই তরুনীর ক্ষেত্রে বিষয়ে যথেষ্ট কারণ ছিল।

রেবেকা রবার্টস নামক এই তরুণী যে সময় বুঝেছিলেন যে তিনি অন্তঃসত্ত্বা, সেই সময় আগে থেকেই তার গর্ভে রয়েছে আরও একটি সন্তান। মাত্র তিন সপ্তাহের মধ্যেই তিনি জানতে পেরেছিলেন যে তিনি আরো একবার নতুন করে গর্ভধারণ করেছেন। একইসঙ্গে দুই সন্তান নোয়া এবং রোজালির জন্ম দিয়েছিলেন এই তরুণী। পুত্রসন্তান সুস্থভাবে জন্মগ্রহণ করলেও কন্যাসন্তান আকারে বেশ ছোটো ছিল।

কন্যা সন্তানকে অন্য হাসপাতলে রেখে তারা তিন মাস ধরে চিকিৎসা করা হয়। তিন সপ্তাহের পার্থক্য থাকলেও ডাক্তারদের মতে, তারা হলো দুই জমজ ভাইবোন। কিন্তু এবারে কথা হলো কি করে এমন একটি আশ্চর্য ঘটনা ঘটলো? চিকিৎসকদের মতে এই পরিস্থিতি এবং ঘটনা একেবারেই বিরল হলেও অস্বাভাবিক কিছু নয়। ডাক্তারি ভাষায় এই পরিস্থিতিকে বলা হয় সুপারফিটেশন।

এক্ষেত্রে কোন তরুণী অথবা মহিলা গর্ভধারণ করার পরে তার শরীরে আরো একটি ডিম্বাণু মুক্ত হতে পারে। ডিম্বাণু টিনিষিক্ত হলে তিনি আরও একবার গর্ভবতী হয়ে পড়েন। তবে সারা বিশ্বের মধ্যে খুব কম মহিলা এমন পরিস্থিতির মধ্যে পড়েন। যে সমস্ত মহিলারা এই পরিস্থিতির মধ্যে পড়েন তাদের দ্বিতীয় সন্তান বাঁচে না।

নিজের অভিজ্ঞতার কথা জানাতে গিয়ে রেবেকা জানিয়েছেন যে, আমি প্রথমে যখন স্ক্যান করিয়ে ছিলাম তখন শুধুমাত্র প্রথম সন্তান কে দেখা গিয়েছিল। এরপর যখন আরো একবার স্ক্যান করা হয় তখন জানতে পারা যায় যে, আমার সন্তান ছাড়াও সেখানে আরো কিছু একটা রয়েছে। পরে চিকিৎসককে দেখাতে তিনি জানান যে, আমি জমজ সন্তানের মা হতে চলেছি। শুনেই আমি কিছুটা ঘাবড়ে যাই।

তবে দুটি সন্তানকে কোলে নিয়ে খুব খুশি হয়েছেন রেবেকা। জন্ম দেওয়ার আগে থেকে ভীষণভাবে টেনশন এ ভুগছেন তিনি। তবে যার শেষ ভালো তার সব ভালো, তাই দুটি সন্তানকে কোলে নিয়ে এখন ভবিষ্যতের স্বপ্ন চোখে নিয়ে বেঁচে রয়েছেন রেবেকা।