‘বাহুবলী’র জন্য অন্য কোনও প্রজেক্টের কাজে হাত দেননি প্রভাস! জানুন তাঁর কর্মনিষ্ঠা সম্পর্কে

6
‘বাহুবলী’র জন্য অন্য কোনও প্রজেক্টের কাজে হাত দেননি প্রভাস! জানুন তাঁর কর্মনিষ্ঠা সম্পর্কে

দক্ষিণী সুপারস্টার প্রভাস আজ আমাদের কাছে এতটা পরিচিতি পেয়েছে তাঁর জনপ্রিয় সিনেমা বাহুবলীর মাধ্যমে। প্রভাসের আসল নাম অবশ্য আমরা অনেকেই জানিনা। তাঁর আসল নাম ভেঙ্কটা সত্যনারায়ণ প্রভাস রাজু উৎপ্লাপতি। গত রবিবার ছিল তাঁর ৪২ তম জন্মদিন। বাহুবলী বলতে অজ্ঞান ছিল সকলে। লক্ষ লক্ষ মানুষের মন খুব সহজেই জয় করে নিয়েছিল বাহুবলীতে প্রভাসের অভিনয়।

প্রভাস বরাবরই ভীষণ প্রফেশনাল অভিনেতা। তিনি আদতে খুব শান্ত মানুষ। তবুও অ্যাকশন ফিল্ম বেশি করেন। প্রভাস যে ভীষণই প্রফেশনাল তার প্রমাণ মেলে ছবির জন্য তাঁর ওজন বাড়ানোর মধ্য দিয়ে। বাহুবলী ছবিতে প্রভাসের রুক্ষ এবং কঠিন চেহারার জন্য একলাফে ৩০ কেজি ওজন বাড়িয়েছিলেন অভিনেতা। জানা যায় ওজন বাড়াতে প্রতিদিন ৪০টি করে ডিম খেতেন প্রভাস। শুধু তাই নয়, তাছাড়া প্রতিদিন ৫ থেকে ৬ ঘন্টা জিমও করতেন তিনি। ‘বাহুবলী’ ভারতীয় সিনেমার অন্যতম বড় বাজেটের ছবি। এছাড়াও ভারতীয় চলচ্চিত্রের একাধিক রেকর্ড ভেঙে ফেলেছে সিনেমাটি।

আজকালকার দিনে প্রায় প্রত্যেক অভিনেতাই একসঙ্গে একের বেশি ছবির শ্যুটিং করেন। তাদের সাথে তুলনায় প্রভাস কিন্তু ব্যাতিক্রমী। তিনি নিজের কাজ নিয়ে ভীষণই ফোকাস থাকেন। তাই একবারে একটি মাত্র ছবির শুটিং করেন তিনি। জানা যায় প্রভাসের ছবি ‘বাহুবলী’-এর শুটিং চলেছিল প্রায় ৫ বছর। আর এই ছবির শুটিং চলাকালীন, তিনি অন্য কোনও প্রজেক্টের কাজে হাত দেননি।

আর সেই জন্যই তিনি ২০০ কোটি টাকার সিনেমার প্রস্তাবও রিজেক্ট করে দিতে পিছুপা হননি। এমনকি অসংখ্য বলিউড ছবিও ফিরিয়েছিলেন তিনি। সূত্রের খবর, ‘বাহুবলী’ ছবির বাজেট ছিল ২৫০ কোটি টাকা। এই সিনেমার জন্য অভিনেতা ২৪ কোটি টাকা পারিশ্রমিক পেয়েছিলেন।