দুর্গোৎসব উপলক্ষে কপালে ভাঁজ পরিবেশ প্রেমীদের, গঙ্গা দূষণ রোধে আগেভাগেই বিশেষ পদক্ষেপ নিল দূষণ নিয়ন্ত্রক বোর্ড

8
দুর্গোৎসব উপলক্ষে কপালে ভাঁজ পরিবেশ প্রেমীদের, গঙ্গা দূষণ রোধে আগেভাগেই বিশেষ পদক্ষেপ নিল দূষণ নিয়ন্ত্রক বোর্ড

লকডাউনের জেরে মানুষ বিপাকে পড়লেও প্রকৃতি কিন্তু আরও সুন্দর হয়ে উঠেছে। লকডাউনের জন্য ‌দীর্ঘদিন ঘরবন্দী ছিল মানুষ। রাস্তাঘাটে যানবাহন চলাচল বন্ধ ছিল। পাশাপাশি কল-কারখানাগুলিও বন্ধ থাকায় স্বাভাবিকভাবেই বায়ু দূষণের মাত্রা কমেছিল। কল কারখানা বন্ধ থাকায় গঙ্গাও আগের তুলনায় অনেকখানিই পরিস্রুত হয়েছে।

বলতে গেলে দীর্ঘদিন আগে গঙ্গা পরিস্রুত করার পরিকল্পনা গ্রহণ করেও যতটা না লাভ হয়েছে, প্রায় তিন চার মাস মানুষ ঘরবন্দি থাকাতে তার অনেক খানিই বাস্তবায়িত হয়েছে। কিন্তু দুর্গোৎসব উপলক্ষে কপালে ভাঁজ পড়েছে পরিবেশ প্রেমীদের। কারণ দশমীর দিন ভাসানের সময় আবারো দূষিত হয়ে উঠতে পারে গঙ্গা। তাই রাজ্যের দূষণ নিয়ন্ত্রক বোর্ডের তরফ থেকে গঙ্গা দূষণ রুখতে আগেভাগেই বিশেষ পদক্ষেপ গ্রহণ করা হলো।

রাজ্যের দূষণ নিয়ন্ত্রক বোর্ডের তরফ থেকে একটি নির্দেশিকা প্রকাশ করে জানানো হলো, এবার দুর্গাপূজা, কালীপূজা সংক্রান্ত সমস্ত আচার অনুষ্ঠান গঙ্গার বদলে উত্তর কলকাতার দুটি পুকুরে সম্পন্ন করতে হবে। প্রতিমা নিরঞ্জনের জন্য উত্তর কলকাতার দুটি পুকুর, লেকটাউনের দেবী ঘাট এবং দমদমের চার নম্বর ট্যাংকে সমস্ত ব্যবস্থা করা হয়েছে।

রাজ্যের দূষণ নিয়ন্ত্রক বোর্ডের এক আধিকারীক জানালেন, গতবছর নিউ টাউনকলকাতা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের উদ্যোগে প্রতিমা নিরঞ্জনের বিষয়টি দূষণমুক্ত ভাবে সম্পন্ন করা গেছে। “ন্যাশনাল মিশন ফর ক্লিন গঙ্গা”এবং গঙ্গা দূষণ কমানোর জন্য দূষণ নিয়ন্ত্রক বোর্ডের থেকে এই পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে।