Xiaomi মোবাইল কোম্পানির উপর অন্তর্বর্তীকালীন নিষেধাজ্ঞা জারির আবেদন জানালো Philips

9
Xiaomi মোবাইল কোম্পানির উপর অন্তর্বর্তীকালীন নিষেধাজ্ঞা জারির আবেদন জানালো Philips

Xiaomi মোবাইল কোম্পানির উপর গুরুতর আরোপ দায়ের করলো Philips কোম্পানি। অভিযোগ এতটাই গুরুতর যে ভারতীয় বাজার থেকে এই চীনা কোম্পানিকে ব্যান করার আবেদনও জানানো হয়েছে আদালতে। Xiaomi মোবাইল কোম্পানির বিরুদ্ধে Philips কোম্পানির অভিযোগ, Xiaomi বেশ কিছু নির্দিষ্ট মোবাইল ফোন রয়েছে যেগুলির মাধ্যমে এই স্মার্টফোন সংস্থা পেটেন্ট লংঘন করছে।

এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ভারতের বাজার থেকে Xiaomiকে ব্যান করার আবেদন জানানোর পাশাপাশি Xiaomi কোম্পানির স্মার্টফোনের ম্যানুফ্যাকচারিং, অ্যাসেম্বলিং, ইমপোর্টিং থেকে শুরু করে থার্ড পার্টি ওয়েবসাইটে অ্যাডভার্টাইজিংও বন্ধ করার নির্দেশ পাঠানোর জন্য আদালতে আবেদন জানিয়েছে Philips কোম্পানি। এর ফলে Xiaomi কোম্পানির স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা বিপাকে পড়তে পারেন।

UMTS এনহ্যান্সমেন্ট (HSPA, HSPA+) এবং LTE টেকনোলজি সম্পন্ন মোবাইল ফোন গুলির বিরুদ্ধেই মূলত অ্যালিগেশন আনা হয়েছে। Xiaomi কোম্পানির স্মার্টফোনের উপর অন্তর্বর্তীকালীন নিষেধাজ্ঞা জারির আবেদন জানিয়েছে Philips। দিল্লি হাইকোর্টের এ সংক্রান্ত আবেদন জানানো হয়েছে। শুধু তাই নয়, ভারতে Xiaomi এর ইমপোর্ট বন্ধ করার নির্দেশ দিতেও আবেদন জানানো হয়েছে।

এই মামলার পরিপ্রেক্ষিতে দিল্লি হাইকোর্টের তরফ থেকে Xiaomi কোম্পানির নিজস্ব একাউন্টে অন্তত ১০০০টাকার এমাউন্ট রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। শুধু তাই নয়, অভিযুক্তদের দিল্লির হাইকোর্টে ব্যাংক একাউন্টের সমস্ত তথ্য জমা দেওয়ার নির্দেশও দেওয়া হয়েছে। ১৮ই জানুয়ারি মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে। Philips এর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে আপাতত বেশ চাপে রয়েছে এই চিনা সংস্থাটি।