নোংরা রাজনৈতিক খেলায় মেতে উঠেছে বিজেপি, অমিত শাহের বক্তব্যের পাল্টা আক্রমণ করলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়

8
নোংরা রাজনৈতিক খেলায় মেতে উঠেছে বিজেপি, অমিত শাহের বক্তব্যের পাল্টা আক্রমণ করলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়

সোমবার, একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে পশ্চিমবঙ্গের আইন শৃঙ্খলার কড়া সমালোচনা করেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। বাংলার আইন-শৃঙ্খলার পরিস্থিতি অত্যন্ত উদ্বেগজনক বলে দাবি করে কার্যত মমতা সরকারকে রাজ্যের আইন শৃংখলা রক্ষায় ব্যর্থ হিসেবে দাবি করতে চেয়েছিলেন তিনি। অমিত শাহের সেই বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে তাকে পাল্টা আক্রমণ করলেন পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে প্রশ্ন তোলায় পার্থ চট্টোপাধ্যায় অমিত শাহকে উত্তরপ্রদেশের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে পাল্টা প্রশ্ন ছুঁড়েছেন। তার বক্তব্য অনুসারে, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কিভাবে বাংলার আইন শৃঙ্খলা রক্ষা প্রসঙ্গে রাষ্ট্রপতি শাসনের পক্ষে সওয়াল করতে পারেন, যেখানে বিজেপি শাসিত একটি রাজ্য থেকে ভয়াবহ গণধর্ষণের ঘটনা প্রকাশ্যে আসে! শিক্ষামন্ত্রীর দাবি, নোংরা রাজনৈতিক খেলায় মেতে উঠেছে বিজেপি।

উল্লেখ্য, সুন্দর একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দিতে বাংলা প্রসঙ্গে উদ্বেগ প্রকাশ করতে গিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, পশ্চিমবঙ্গ এখন কার্যত বোমা তৈরীর কারখানায় পরিণত হয়েছে। সেখানে বিরোধী রাজনৈতিক দলের কর্মীদের হত্যা করা হচ্ছে। রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা বিঘ্নিত। ত্রানের টাকা নিয়েও সেখানে দুর্নীতি হয়। এরকম একটি রাজ্যে বিরোধীরা যদি রাষ্ট্রপতি শাসন দাবি করে থাকেন, তাহলে তা অযৌক্তিক নয়।

বিজেপির বহু নেতাকর্মী আসন্ন একুশের নির্বাচনের পূর্বে বাংলায় রাষ্ট্রপতি শাসনের দাবি করছেন। বাবুল সুপ্রিয়, কৈলাস বিজয়বর্গীয়ের মতো নেতারা অনবরত বাংলায় রাষ্ট্রপতি শাসনের দাবি করছেন। এ সম্পর্কে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর বক্তব্য, বাংলা রাষ্ট্রপতি শাসন জারি করা হবে কিনা সে বিষয়ে এখনই কোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়নি। রাষ্ট্রপতি শাসন জারি করা হলে তা সংবিধান মেনেই হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।