ট্রেড লাইসেন্সের জন্য ফি বেঁধে দিল পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন দফতর!

13
ট্রেড লাইসেন্সের জন্য ফি বেঁধে দিল পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন দফতর!

এবার পঞ্চায়েতগুলি ট্রেড লাইসেন্সের জন্য আর যেমন খুশি ফি নিতে পারবে না। ফি বেঁধে দিল পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন দফতর। সেই টাকা জমা দিতে হবে অনলাইনে। দোকান বা কারখানার আয়তনের উপরে ফি নির্ভর করবে।

শিল্প ও ব্যবসায়ী মহল ক’দিন আগে জারি হওয়া ওই নির্দেশিকাকে স্বাগত জানিয়েছে। পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন দফতরের কর্তাদের একাংশ জানান, ট্রেড লাইসেন্সের নাম করে বেআইনি পথে টাকা নেওয়ার একাধিক অভিযোগ তাঁদের কাছে আসে। সেই সব অভিযোগ খতিয়ে দেখে শিল্প ও ব্যবসার সুবিধার্থেই এই সিদ্ধান্ত।

দফতরের এক কর্তা জানিয়েছেন, ‘‘সরকার চায় গ্রামেও শিল্প-বাণিজ্যের বিস্তার হোক। ফলে, শিল্পোদ্যোগী ও ব্যবসায়ীদের সামনে পঞ্চায়েতগুলি যাতে কোনও বাধা হয়ে না দাঁড়ায়, সেটা সরকার সুনিশ্চিত করতে চায়।’’ পঞ্চায়েতমন্ত্রী পুলক রায় জানান, ‘‘আমি নতুন মন্ত্রী হয়েছি। ট্রেড লাইসেন্স সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত আগেই নেওয়া হয়েছে। যদি কোনও সমস্যা হয়, তা খতিয়ে দেখে মুখ্যমন্ত্রীর পরামর্শ মেনেই সিদ্ধান্ত নেব।’’

পঞ্চায়েত দফতর সূত্রে খবর, যে পঞ্চায়েত এলাকায় শিল্প বা ব্যবসা করার জন্য ট্রেড লাইসেন্স নেওয়া হবে ওয়েবসাইটে সেই পঞ্চায়েতের নামে একটি নির্দিষ্ট ‘কোড’ থাকবে। সেই ‘কোড’ থেকেই পাওয়া যাবে পঞ্চায়েতের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট নম্বর। ফি এবং কাগজপত্র জমা দিলে সঙ্গে সঙ্গে লাইসেন্স পাওয়া যাবে। লাইসেন্স নবীকরণের ক্ষেত্রেও একই নিয়ম করা হয়েছে।