পাকিস্তানি দম্পতির সীমান্তে সন্তানলাভ!

9
পাকিস্তানি দম্পতির সীমান্তে সন্তানলাভ!

আটারি সীমান্তে পাক মায়ের কোলে জন্ম হল সন্তানের। ২০২১ এর ২ ডিসেম্বর জন্মগ্রহণ করেছে সেই শিশু। আটারি সীমান্তে সেই শিশুর জন্ম হয়েছে বলে তার নাম রাখা হয়েছে বর্ডার।

পাকিস্তানি দম্পতি নিম্বু বাই ও বালম রামের সন্তান হল বর্ডার। এই দম্পতি আরও ৯৭ জন পাকিস্তানি নাগরিকের সঙ্গে বিগত ৭১ দিন ধরে আটকে রয়েছে আটারি সীমান্তে। আটারি সীমান্তের অস্থায়ী ছাউনিতেই সেই সন্তান ভূমিষ্ঠ হয়। আটারি সীমান্তের কঠোর দিনগুলোর কথা মনে রেখে নিম্বু বাই ও বালম রাম তাঁদের সন্তানের নাম রেখেছেন বর্ডার।

পঞ্জাব প্রদেশের রাজনপুর জেলার বাসিন্দা নিম্বু বাই ও বালম রাম। ভারত-পাকিস্তান সীমান্ত আটারি সীমান্তে  তাঁদের সন্তানের জন্ম হওয়ার কারণে, তার নাম রাখা হয়েছে বর্ডার। ২ ডিসেম্বর নিম্বু বাইয়ের প্রসববেদনা শুরু হয়। সীমান্ত লাগোয়া গ্রাম থেকে কয়েকজন মহিলা আটারি সীমান্তে গিয়ে নিম্বু বাইয়ের পাশে দাঁড়ান। তাঁরাই সেখানে নিম্বু বাইকে সন্তান প্রসব করতে সাহায্য করেন।

চিকিৎসা পরিষেবা স্থানীয় সাহায্য কেন্দ্রগুলোর তরফে দেওয়া হয়েছে। সন্তানের জন্মের জন্য দেওয়া হয়েছে সবরকম সুবিধা। বালম রাম জানিয়েছেন, “আরও ৯৭ জন নাগরিকের সঙ্গে তাঁরা ভারতে এসেছিল। আত্মীয়ের সঙ্গে দেখা করার পাশাপাশি তীর্থেও গিয়েছিলেন তাঁরা। লকডাউনের আগেই তাঁরা ভারতে এসেছিলেন। কিন্তু প্রয়োজনীয় নথি না দেখাতে পারায় তাঁদের আটক করা হয়। তাঁরা বাড়ি ফিরতে না পেরে আটক রয়েছেন আটারি সীমান্তে। স্থানীয় প্রশাসন জানিয়েছে এই দলে প্রায় ৪৭টি শিশু রয়েছে। এর মধ্যে ৬ জন বর্ডারের মতোই ভারতে জন্মগ্রহণ করেছে। বালম ছাড়াও আরও এক পাকিস্তানি রয়েছেন দলে যাঁর সন্তান আটারি সীমান্তে জন্মায়। সেই সন্তানের নাম রাখা হয়েছে ভারত।”