আমেরিকার বিরুদ্ধে মুখ খুলে চীনের পাশে দাঁড়ালো পাকিস্তান

6
আমেরিকার বিরুদ্ধে মুখ খুলে চীনের পাশে দাঁড়ালো পাকিস্তান

তাইওয়ান ইসুকে কেন্দ্র করে আন্তর্জাতিক মহল ক্রমশ উত্তপ্ত হয়ে উঠছে। চীন এই দ্বীপ রাষ্ট্রকে নিজেদের কুক্ষিগত করে ফেলতে চায়। এবার এই বিষয় নিয়ে চীনের পাশে এসে দাঁড়ালো তাদের বন্ধু রাষ্ট্র পাকিস্তান। পাকিস্তান আমেরিকার বিরুদ্ধে মুখ খুলেছে। শান্তি ভঙ্গ করছে আমেরিকা, এমনটাই মন্তব্য পাকিস্তানের।

উল্লেখ্য চীনের সতর্কবার্তা উপেক্ষা করে মঙ্গলবার মালয়েশিয়া থেকে তাইয়ানে পৌঁছে যান আমেরিকার হাউস অফ রিপ্রেজেন্টেটিভের স্পিকার। তার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে দক্ষিণ চীন সাগরে আমেরিকার যুদ্ধ বিমান ঢুকে পড়ে। জাপানের বিমান ঘাঁটি থেকে আমেরিকার বিমান বাহিনীর ১৩ টি যুদ্ধবিমানের একটি স্কোয়াড্রন উড়ে এসে পৌঁছায়।

এর পরিপ্রেক্ষিতে চীনের বিদেশ দপ্তরের মুখপাত্র সরাসরি ওয়াশিংটনকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন এর জন্য বড় মূল্য দিতে হবে। যার পরিপ্রেক্ষিতে মুখ খুলেছে পাকিস্তান। উল্লেখ্য এই প্রথম আমেরিকার কোন শীর্ষস্থানীয় রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব তাইওয়ানে এসেছেন। এই পরিস্থিতিতে পাকিস্তান আমেরিকা বিরোধী অবস্থান নিয়েছে।

যদিও এদিকে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা এর পেছনে অন্য সমীকরণ খুঁজছেন। তাদের দাবি এই মুহূর্তে পাকিস্তান জটিল সমস্যার সম্মুখীন হয়েছে। তাক বিদেশ মন্ত্রক বিবৃতি দিয়ে বলেছেন ইউক্রেন রাশিয়ার যুদ্ধের কারণে খাদ্য এবং জ্বালানির যোগান নিয়ে সমস্যা দেখা দিয়েছে।। এই পরিস্থিতিতে আরও একটি সংঘাতের মুখোমুখি হওয়ার পরিস্থিতি নেই বিশ্বের।