১০০ কোটি টাকার সম্পদের মালিক! অথচ জানেই না এই দিনমজুর মহিলা

31
১০০ কোটি টাকার সম্পদের মালিক! অথচ জানেই না এই দিনমজুর মহিলা

রাজস্থানের এক দিন মজুর মহিলা প্রতিদিন চাষবাস করে কিংবা দিনমজুরি করে কোনো রকমে দিন চালাতেন। সেই তিনিই নাকি ১০০ কোটি টাকার সম্পদের মালিক! সম্প্রতি আয়কর দপ্তরের তদন্তের রিপোর্টে এমনটাই জানা গিয়েছে। রাজস্থানের সিকার জেলার ছোট্ট একটি গ্রামে বসবাস করেন ওই মহিলা। ওই মহিলার নামে এত সম্পতি কোথা থেকে এলো, সেই তদন্ত করছে আয়কর দপ্তর।

ওই দিনমজুরের নাম সঞ্জু দেবী। বেশ কয়েক বছর আগে তার স্বামীর মৃত্যু হয়েছে। দিনমজুরি করে এবং চাষবাস করে সন্তানদের দেখভাল করেন তিনি। সম্প্রতি তিনি জানতে পেরেছেন যে জয়পুর-দিল্লি হাই রোডের ধারে প্রায় ৬৪ বিঘা জমি রয়েছে তার নামে। আয়কর দপ্তরের আধিকারিকদের কাছে তিনি জানিয়েছেন, তার স্বামীর মৃত্যুর মাস কয়েক আগে অ্যাম্বার গিয়েছিলেন তারা।

সেখানে কাজের সূত্রে বেশ কিছু বড় মানুষের সঙ্গে তাদের দেখাশোনা হয়েছিল। বেশকিছু ধনী ব্যবসায়ীর সঙ্গে তার স্বামীর যোগাযোগ ছিল। তারপর আচমকাই তাকে একদিন একটি কাগজে টিপছাপ দিতে বলা হয়। সেই দলিলে যে ৬৪ বিঘা জমির উল্লেখ আছে সেটা তিনি জানতেন না। সেই থেকে এতদিন পর্যন্ত তার নামের এই বিপুল পরিমাণ সম্পদের অস্তিত্ব সম্পর্কে তিনি কিছুই জানতেন না।

আয়কর দপ্তরের আধিকারিকরা মনে করছেন, সঞ্জু দেবীর নামে যে সম্পত্তি রয়েছে তা আসলে আদিবাসী অধ্যুষিত এলাকায় রয়েছে। নিয়ম অনুসারে আদিবাসী অধ্যুষিত এলাকার জমি কেবল আদিবাসীরাই কিনতে পারেন। তাই সঞ্জু দেবীর নামে ওই বিপুল পরিমাণ সম্পত্তি লিখে দেওয়া হয়েছে। ব্যবসায়ীরা এরপর বেনামে তার সম্পত্তিতে ব্যবসা চালাতেন। আয়কর দপ্তর আপাতত ওই জমি বাজেয়াপ্ত করে নিয়েছে।