এবার স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলবেন সাধারণ মানুষ! ২৫ টাকা কেজি দরে মিলবে আলু

29
এবার স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলবেন সাধারণ মানুষ! ২৫ টাকা কেজি দরে মিলবে আলু

রাজ্য সরকারের উদ্যোগে অবশেষে এবার স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলবেন সাধারণ মানুষ। ৪০ টাকা কেজি দরে আলু কিনতে গিয়ে এতদিন সাধারণের পকেট গড়ের মাঠ জোগাড় হয়েছে। এবার থেকে রাজ্যের প্রতিটি সরকারীভাবে নথিভূক্ত বাজারে ২৫ টাকা কেজি দরে আলু মিলবে। রাজ্যের কৃষি বিপনন দপ্তরের তরফ থেকে আগামীকাল সকল খুচরো বিক্রেতাকে ২২ টাকা কেজি দরে জ্যোতি আলু দেওয়া হবে।

কৃষি বিপনন দপ্তর থেকে ২২ টাকা কেজি দরে যে আলু পাওয়া যাবে খুচরা বিক্রেতারা সেই আলু খোলাবাজারে বড়জোর ২৫ টাকা দরে বিক্রি করতে পারবেন। রাজ্য সরকারের নির্দেশে কৃষি বিপনন দপ্তরের সচিব রাজেশ সিংহ গতকাল এর জন্য একটি বিশেষ টাস্কফোর্স গঠন করেছেন। সেইমতো গতকালই কৃষি বিপনন দপ্তরের গঠিত টাস্কফোর্স রাজ্যের প্রতিটি বাজার কমিটির সঙ্গে বৈঠক করে।

বৈঠকে গৃহীত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, কৃষি বিপনন দফতর ও টাস্কফোর্স সম্মিলিত ভাবে বাজার কমিটি গুলিতে ২২ টাকা কেজি দরে আলু পৌঁছে দেবে। তবে বিক্রেতারা যদি ২৫ টাকা কেজি দরে আলু বিক্রি করতে চান, তাহলে তাকে শুধু এই দরেই আলু বিক্রি করতে হবে। অন্য আড়তদারের থেকে আলু কিনে বেশি দামে বিক্রি করা যাবে না। একই দোকানে দুই রকম দরে আলু বিক্রি করা যাবে না।

কৃষি বিপনন দপ্তরের কড়া নির্দেশ, কোন সবজি বিক্রেতা যদি এই নিয়ম উলঙ্ঘন করেন তাহলে তাহলে তাকে কড়া শাস্তি পেতে হবে। উল্লেখ্য, লকডাউন পর্ব থেকেই রাজ্য আলু এবং পেঁয়াজসহ অন্যান্য সব সবজির দাম তুলনামূলকভাবে বৃদ্ধি পায়। নাসিক থেকে আগত পেঁয়াজের আমদানি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি হয়। পাশাপাশি আলুর দামও আকাশছোঁয়া হয়ে যায়। সরকারিভাবে নথিভুক্ত বাজারগুলিতে যাতে কম মূল্যে আলু পাওয়া যায় সেই উদ্দেশ্যেই এই বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণ করল রাজ্য সরকার।