সরকারের কাজের ইতিবাচক খবর তুলে ধরলেই মিলবে ‘সরকারি’ বিজ্ঞাপনঃ মমতা

69
সরকারের কাজের ইতিবাচক খবর তুলে ধরলেই মিলবে 'সরকারি' বিজ্ঞাপনঃ মমতা

গ্রামীণ পত্রিকাগুলির উদ্দেশে বিশেষ বার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কখনও-সকোনো সাংবাদিকদের প্রশ্নে ক্ষুণ্ণ হলে অভিযোগ করেন, তাঁরা নাকি বিরোধী দলের হয়ে কাজ করছেন। আবার ক্যামেরার পিছনে নিজেই সাংবাদিকদের খোঁজ খবর নেন, তাঁদের সুবিধা-অসুবিধার বিষয়গুলি খতিয়ে দেখেন।

মুখ্যমন্ত্রী তখন রাজনীতিবিদ থাকেন না। হয়ে যায় সত্যিকার অর্থে ‘দিদি’। আর এহেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়েরই গ্রামীণ পত্রিকাগুলির উদ্দেশে বার্তা, সরকারের কাজের ইতিবাচক খবর তুলে ধরলেই নাকি সরকারি বিজ্ঞাপন পাবে তারা।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যে পুরভোটের এই আবহে পরপর প্রশাসনিক বৈঠকে ব্যস্ত। গত বৃহস্পতিবার হাওড়াতে ছিল এমনই এক প্রশাসনিক বৈঠক। সেখানেই এক গ্রামীণ পত্রিকার কর্ণধার নিজেদের আর্থিক দুরবস্থার কথা তুলে ধরেন। আর জবাবে ‘সমাধান’ বাতলে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী।

এদিন প্রশাসনিক সভায় গ্রামীণ পত্রিকার কর্ণধার বলেন, ‘দিদি, আমরা গ্রামীণ পত্রিকায় কাজ করি। গত ১১ বছর ধরে আমার কাগজ চলছে। কিন্তু আমরা যারা তথাকথিত ছোট পত্রিকায় কাজ করি তাদের আর্থিক অবস্থা খুব খারাপ। কারণ আমরা বিজ্ঞাপন পাই না। এ বিষয়ে যদি একটু নজর দিতেন তবে ভালো হত।’

মুখ্যমন্ত্রী এর জবাবে জানান,” যে গ্রামীণ পত্রিকাগুলো সরকারের ডেভলপমেন্ট কাজ পজিটিভলি, পজিটিভ ভাবে করবেন, আমি ডিএমকে বলব, তাদের যেন আমরা বিজ্ঞাপনটা দিই।’