এক ব্যাক্তি প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে গিয়ে ধরা পরল গুগল ম্যাপের ক্যামেরায়

14
এক ব্যাক্তি প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে গিয়ে ধরা পরল গুগল ম্যাপের ক্যামেরায়

যত্রতত্র থুথু ফেলবেন না অথবা মল ত্যাগ করিবেন না একথা আমাদের ভারতবর্ষে বিশেষত পশ্চিমবঙ্গে খুবই সাধারণ একটি কথা। এছাড়া গ্রামেগঞ্জে বহু মানুষকে দেখতে পাওয়া যায় যে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে প্রকৃতির মধ্যে বসে পড়তে। কিন্তু এমন ঘটনা যদি ঘটে বিদেশে, তখন কেমন হবে।

হ্যাঁ এমনি একটি ঘটনা সম্প্রতি ধরা পরল নেদারল্যান্ডসের গুগল ম্যাপের ক্যামেরায়। নেদারল্যান্ডের এক ব্যক্তির সঙ্গে ঘটে গেছে সাংঘাতিক একটি ঘটনা। ঘটনাটি সাংঘাতিক বলার একটি কারণ আছে। আপনি যদি বাড়ি থেকে বেরিয়ে গন্তব্যের উদ্দেশে রওনা হন এবং মাঝ রাস্তায় আপনার মলত্যাগ করার প্রয়োজন হয় তাহলে বুঝবেন আপনার সঙ্গে কতখানি সাংঘাতিক ঘটনা ঘটতে চলেছে। নেদারল্যান্ডের এই ব্যক্তির সঙ্গে এমন একটি ঘটনা ঘটে। বাড়ি থেকে বেরিয়ে গন্তব্যের উদ্দেশে রওনা হন তখন হঠাৎ করে মাঝরাস্তায় তার মলত্যাগ করার প্রয়োজন হয়। চারিদিকে অনেক খুজে বাথরুম না পেয়ে অবশেষে তিনি ফাঁকা মাঠে মলত্যাগ করা শুরু করে দেন।

এই পর্যন্ত ব্যাপারটা খুব একটা অস্বাভাবিক ছিল না কিন্তু ঘটনাটি এক যুবক ক্যামেরা ফ্রেমবন্দি করে ফেলে। রুসেন্দাল এলাকায় তিনি গুগল ম্যাপে কাজ করতে গিয়ে ছবিটি তুলে ফেলেন এবং পোস্ট করে ফেলেন। সঙ্গে সঙ্গে ভাইরাল হতে সময় নেয় নি এই ছবি। ছবিতে স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে ব্যক্তি ফাঁকা মাঠে বসে মল ত্যাগ করছেন।

এই ছবি reddit e ব্যবহারকারী শেয়ার করেন। আই ফাউন্ড সামওয়ান পপিং ইন দ্য গ্রাস, এই ক্যাপশন দিয়ে তিনি পোস্ট করেন এই ছবিটি।তারপর এই কমেন্টের বন্যা বয়ে যায় ছবিটি তলায়। অনেকেই নিজের নিজের মতো করে বক্তব্য রেখেছেন।

তবে এমন একটি ঘটনা আরো একবার ঘটেছিল গুগলের সঙ্গে। গুগল ম্যাপে এমন আরেকটি ঘটনা রেকর্ড হয়েছিল ২০১৮ সালে। পেরুর এক ব্যক্তি ব্রিজ নিয়ে রিসার্চ করছিলেন। যার জন্য গুগল ম্যাপে কাজ করেন তিনি। কিন্তু ম্যাপ খুলতেই সেই ব্রিজ খুঁজতে গিয়ে তার চোখে ধরা পড়ে এমন একটি ছবি।