এবার রাজ্যের ‘ডু ইট নাও’ প্রকল্পে ১৫ দিনের মধ্যেই পাবেন পরিষেবা! জানুন বিস্তারিত

41
এবার রাজ্যের ‘ডু ইট নাও’ প্রকল্পে ১৫ দিনের মধ্যেই পাবেন পরিষেবা! জানুন বিস্তারিত

সাধারণ মানুষকে বিভিন্ন দরকারি ক্ষেত্রে অতি দ্রুত পরিষেবা দেওয়ার জন্য নিত্য নতুন ব্যবস্থা গ্রহণ করছে রাজ্য সরকার। এবার থেকে আবেদনের মাত্র ১৫ দিনের মধ্যেই ট্রেড লাইসেন্স, বিল্ডিং প্ল্যান এবং মিউটেশনের ছাড়পত্র পেয়ে যাবেন সাধারণ মানুষ। আগে এই ধরনের পরিষেবা পাওয়ার জন্য অনেক অপেক্ষা করতে হতো। কিন্তু এবার থেকে সেই ব্যবস্থা আরও সুবিধাজনক হলো। আইনগত জটিলতাও আর আগের মতো রইলো না।

আসলে এই ব্যাপার নিয়ে এতদিন সাধারণের তরফ থেকে নবান্নের কাছে বারংবার অভিযোগ জমা পড়ছিল। তাই এবার বিষয়টিকে গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করেছে রাজ্য সরকার। সোমবার নবান্নে আয়োজিত একটি ভার্চুয়াল বৈঠকে এই ঘোষণা করেছেন অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র। তিনি জানিয়েছেন, সাধারণ মানুষের সুবিধার্থে চালু হচ্ছে একটি অনলাইন পোর্টাল। এই পোর্টালে ই-গৃহনকশা, ই ট্রেড লাইসেন্স এবং ই মিউটেশনের অপশন থাকবে।

এই পোর্টালের নির্দিষ্ট বিভাগে আবেদন করলেই ১৫ দিনের মধ্যেই সুবিধা পেয়ে যাবেন। কিভাবে আবেদন করবেন সেই বিষয়ে যাবতীয় তথ্য ওই e-portal এই পেয়ে যাবেন। যদি আবেদন করার পর ১৫ দিনের মধ্যে পরিষেবা না পান সেক্ষেত্রে অভিযোগ জানানোর জন্য জায়গাও থাকছে। রাজ্য সরকারের তরফ থেকে এই প্রকল্পের নাম রাখা হয়েছে ‘ডু ইট নাও’। প্রসঙ্গত এর আগে সিপিএম নেতা তথা মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য এমন একটি প্রকল্প চালু করেছিলেন। তবে সেই প্রকল্পও তিনি বাস্তবে রূপায়ণ করতে পারেননি।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুখ্যমন্ত্রী পদে বসার পর পরই এই প্রকল্প বাস্তবায়িত করার প্রচেষ্টা চালিয়েছিলেন। সেই প্রচেষ্টা এতদিনে সফল হলো। রাজ্যের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গে এই প্রথম এমন কোনো উদ্যোগ সফল হলো। এই দিনের বৈঠকে অমিত মিত্র ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের পুর ও নগর উন্নয়নমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য, মুখ্য সচিব হরি কৃষ্ণ দ্বিবেদী এবং কলকাতা পৌরসভার সচিব।