ইউক্রেন এবং রাশিয়ার যুদ্ধের খবরা-খবর পাওয়া যাচ্ছে এই অ্যাপের মাধ্যমে

9
ইউক্রেন এবং রাশিয়ার যুদ্ধের খবরা-খবর পাওয়া যাচ্ছে এই অ্যাপের মাধ্যমে

বহুদিন হয়ে গেল ইউক্রেন এবং রাশিয়ার মধ্যে যুদ্ধ হচ্ছে এই রকম অবস্থাতে পুতিন সরকার সমস্ত খবরের চ্যানেল গুলো বন্ধ করে দিয়েছে। কিন্তু অন্যদিকে রাশিয়ার খবরা-খবর পাওয়ার জন্য সাধারণ মানুষ ইতিমধ্যে কৌতুহলী হয়ে উঠেছে। এই জন্য এখন খবরের চ্যানেল বাদ দিয়ে বিভিন্ন অ্যাপের মাধ্যমেই আলাপ আলোচনা করা হচ্ছে। এই অ্যাপগুলির মধ্যে সবথেকে বেশি জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে টেলিগ্রাম। অন্য দিক থেকে সাংবাদিকরাও নানানভাবে লেখালেখি চালিয়ে যাচ্ছেন এবং ওই অ্যাপের মাধ্যমে তাদের খবরগুলি পরিবেশন করছেন।

যুদ্ধের নানারকম খবরা খবর পেতে এই অ্যাপটি প্রচুর পরিমাণে মানুষ ব্যবহার করছে। ইতিমধ্যেই ৪৫ লক্ষ রাশিয়ানদের স্স্মার্টফোনে রয়েছে এই অ্যাপটি। ২০১৪ সাল থেকে আজ বর্তমান সময় পর্যন্ত এই অ্যাপটি ডাউনলোড করেছেন প্রায় ১২ কোটি রাশিয়ান। এই অ্যাপটিতে প্রথম যুদ্ধের খবর সম্পর্কে লিখেছিলেন রুশ সাংবাদিক ফরিদা রুস্তমোভাই। তিনি এই অ্যাপটিতে যখন প্রথম প্রতিবেদন দেন তার পরপরই তার সাবস্ক্রাইবের সংখ্যা দিয়ে দাঁড়িয়ে ছিল ২২ হাজারে। তার মধ্যে ইসকন অফ মস্কো নামের একটি রেডিও স্টেশন বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে, অন্যদিকে এরই ডেপুটি এডিটর টেলিগ্রামে একটি নতুন করে একাউন্ট খুলেছেন। তার বক্তব্য টেলিগ্রামে তার শ্রোতার সংখ্যা অনেক বেড়ে গিয়েছে।

অপরদিকে রাশিয়ার একজন সাংবাদিক এই বিষয়ে জানান, দেশের বাসিন্দাদের কাছে যুদ্ধ সম্পর্কের নানা খবরা-খবর দেওয়ার জন্য এই অ্যাপটি একমাত্র জায়গা। ফেসবুক, টুইটার সমস্ত কিছু ইতিমধ্যে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে এবং এগুলোর পরবর্তীকালে যেটি সবথেকে বেশি জনপ্রিয় সেটি হচ্ছে টেলিগ্রাম। তবে এই টেলিগ্রামের ওপর নজরদারি করার চেষ্টা চলছে বলে জানা গেছে।