তামিলনাড়ু অন্ধ্র উপকূলে ফের ঘূর্ণি ঝড় আছড়ে পরার আশঙ্কা, পরিস্থিতি মোকাবিলায় তৈরি এনডিআরএফের দল

21
তামিলনাড়ু অন্ধ্র উপকূলে ফের ঘূর্ণি ঝড় আছড়ে পরার আশঙ্কা, পরিস্থিতি মোকাবিলায় তৈরি এনডিআরএফের দল

ঘূর্ণিঝড় যেতে না যেতেই আরেক ঘূর্ণিঝড়ের ইঙ্গিত দিয়ে দিল মৌসম ভবন। এবারের ২০২০ সাল টিকে ঘূর্ণিঝড়ের বছর বললেও ভুল বলা হবে না। কারণ একের পর এক আছড়ে পরছে উপকূলের জেলাগুলোতে, অঞ্চলগুলোতে। আমফান, নিসর্গ থেকে শুরু করে বড় বড় সব ঘূর্ণিঝড় এসেই চলেছে কখনও পূর্ব ভারত, কখনও পশ্চিম ভারত বা কখনও দক্ষিণ ভারত।

এবার মৌসম ভবন থেকে জানিয়েছেন তামিলনাড়ুর মমল্লপুরম ও পুডুচেরিতে আছড়ে পরার সম্ভাবনা আছে এই ঘূর্ণিঝড় নিভারের। আজ মঙ্গলবার থেকেই এই ঘূর্ণিঝড়ের দাপট শুরু হতে পারে বলে জানা গেছে যেটা নাকি আগামী বৃহস্পতিবার পর্যন্ত চলবে বলে জানা গেছে। তাই ইতিমধ্যে এন ডি আর এফের ৩০ টি দল পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে সেই সব জায়গায়।

এই বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে এন ডি আর এফের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, আসলে ১২ টি দল এখনই মোতায়েন করা হয়ে গেছে, বাকি ১৮ টি দল এখন নিয়োগ হওয়ার জন্য প্রস্তুত। আমাদের আসল লক্ষ্য কোনোভাবেই মানুষ যেনো অসুবিধার মধ্যে না পরে, তাদের যেনো সুরক্ষিত ভাবে উদ্ধার করা সম্ভব হয়। এক একটি দলে রয়েছে ৩৫-৪৫ জনের মতো জওয়ান থাকেন।

মৌসম ভবন সূত্রে জানা গেছে দক্ষিণ পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে এই গভীর নিম্নচাপ সৃষ্টি হয়েছে, যেটা কিনা ২৪ ঘন্টার মধ্যেই তামিলনাড়ু অন্ধ্র উপকূলে আছড়ে পরার সম্ভাবনা আছে। গতকাল ২৩ নভেম্বর উপকূলের জেলাগুলোতে বৃষ্টি হয়েছে, আগামী আরও ২ দিন এই বৃষ্টি হবে বলে জানা গেছে। তাই আগামী কয়েকদিন সবাইকে বিশেষ করে মতসজীবীদের সমুদ্র থেকে দূরে থাকার নির্দেশ দিয়েছে।