বেতন বৃদ্ধির দাবীতে শিক্ষক-শিক্ষিকাদের বিক্ষোভে সরগরম হয়ে উঠল নবান্ন চত্বর

14
বেতন বৃদ্ধির দাবীতে শিক্ষক-শিক্ষিকাদের বিক্ষোভে সরগরম হয়ে উঠল নবান্ন চত্বর

বুধবার দুপুর থেকেই নবান্ন চত্বর সরগরম হয়ে উঠল শিক্ষক-শিক্ষিকাদের বেতন বৃদ্ধির দাবিতে। শিক্ষক ঐক্য মুক্ত মঞ্চের সদস্যরা এদিন তাদের দাবি নিয়ে পৌঁছে গেলেন নবান্ন চত্বরে, মুখ্যমন্ত্রীর কাছে তাদের আবেদন পৌঁছে দেওয়ার জন্য বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন তারা। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বুধবার দুপুর তিনটে নাগাদ নবান্নে উচ্চপর্যায়ের বৈঠক ছিল। এদিন নবান্নের বাইরে বসেই বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন শিক্ষক-শিক্ষিকারা।

নবান্নের সামনে হাইসিকিউরিটি জোনের মধ্যে শিক্ষক শিক্ষিকারা কিভাবে ঢুকে পড়লেন তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। শিক্ষক-শিক্ষিকাদের বিক্ষোভ সামাল দেওয়ার জন্য পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। এরপর পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তি বেঁধে যায় শিক্ষক-শিক্ষিকাদের। বিক্ষোভরত শিক্ষক-শিক্ষিকাদের দাবি, ১০ হাজার টাকা বেতনে এখন আর সংসার চালানো সম্ভব হচ্ছে না। তাই বেতন বৃদ্ধির দাবিতে সরব হন তারা।

মঙ্গলবার থেকেই বেতন বৃদ্ধির দাবিতেই এদিন বিকাশভবন চত্বরে বিক্ষোভ দেখান শিক্ষক ঐক্য মুক্ত মঞ্চের সদস্যরা। বাংলার বর্তমান শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুকে কটাক্ষ করে তারা স্লোগান দেন, ‘সন্ধান চাই সন্ধান চাই, নিখোঁজ বাংলার শিক্ষামন্ত্রীর সন্ধান চাই’। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুর ছবি নিয়ে তাদের ‘নিখোঁজ’ বলে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন শিক্ষক-শিক্ষিকারা।

শিক্ষক-শিক্ষিকাদের অভিযোগ, বিকাশভবন, এমনকি শিক্ষামন্ত্রীর বাড়ি গিয়ে বারংবার আবেদন জানিয়েও কোনো ফল মেলেনি। তারা দাবি করছেন বহু প্রচেষ্টা করেও তারা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে পৌঁছে নিজেদের দাবি জানাতে পারেননি। তাই বিক্ষোভের পথ বেছে নিয়েছে হয়েছে তাদের।