স্বাধীনতা দিবসে কাশ্মীরে পতাকা উত্তোলন করলেন জঙ্গি বুরহান ওয়ানির বাবা মুজফর ওয়ানি

13
স্বাধীনতা দিবসে কাশ্মীরে পতাকা উত্তোলন করলেন জঙ্গি বুরহান ওয়ানির বাবা মুজফর ওয়ানি

২০১৬ সালের ৬ জুলাই- ভারতীয় সেনার হাতে প্রাণ হারায় হিজবুল মুজাহিদ্দিনের কম্যান্ডার বুরহান ওয়ানি। বুরহানের মৃত্যুর পর কাশ্মীরে হাজার হাজার মানুষ তার শেষযাত্রা করেছিল। ওই শেষযাত্রায় ভারত বিরোধী স্লোগান উঠেছিল। বুরহানের সেই কালো ছায়া ভুলিয়ে এগিয়ে যেতে চাইছে তার পরিবারও। আর সেই সূত্রেই দেশের ৭৫ তম স্বাধীনতা দিবসে বুরহান ওয়ানির বাবা মুজফর ওয়ানি কাশ্মীরে দেশের পতাকা উত্তোলন করলেন। বুরহানের বাবা দ্বারা তিরঙ্গা উত্তোলনের ছবি-ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হচ্ছে।

বুরহান ওয়ানির বাবা মুজফর ওয়ানি জম্মু কাশ্মীরের পুলওয়ামার একটি স্কুলে ৭৫ তম স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছিলেন। তিনি ত্রালের একটি উচ্চ-প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক। সেখানে তিনি পতাকা উত্তোলন করেন আর শেষে জাতীয় সঙ্গীতও গান।

কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা তুলে নেওয়ার পর অনেক কিছু পরিবর্তন দেখা দিয়েছে। এখন সেখানে আর জঙ্গিদের তান্ডব সেভাবে চোখে পড়ে না। পাথরবাজির ঘটনাও কমেছে। জম্মুর প্রসিদ্ধ লাল চক তিরঙ্গার আলোয় সেজে উঠেছে। গোটা রাজ্য জুড়ে ভারতের পতাকা উত্তোলিত হচ্ছে। গোটা রাজ্যের মানুষ স্বাধীনতা দিবসের এই অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছেন। রাজ্যের পরিকাঠামো মজবুত করা হচ্ছে। এবং রাজ্যে বিনিয়োগের সম্ভাবনাও দেখা দিয়েছে।

বুরহান ওয়ানির মৃত্যুর পর দক্ষিণ কাশ্মীর হিংসার আগুনে জ্বলে উঠেছিল। চারদিকে সেনার বিরুদ্ধে স্থানীয় মানুষদের উস্কানি দেওয়ার কাজ চলছিল। তবে এখন ধীরে ধীরে ভূস্বর্গের পরিস্থিতি অনেকটাই স্বাভাবিক হচ্ছে। সন্ত্রাসবাদ যে পুরোপুরি নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে তা কিন্তু নয়। কারণ ভূস্বর্গে এখনও রোজই জঙ্গি হামলা হয়, আর সেনার এনকাউন্টারও চলে।