জিএসটির আওতায় এলো একাধিক পণ্য

13
জিএসটির আওতায় এলো একাধিক পণ্য

প্রত্যেকদিন বর্ধিত মুদ্রাস্ফীতি সামনে যেন দাঁড়িয়ে রয়েছে আমাদের ভারতবর্ষের অর্থনীতি। ইতিমধ্যেই যেভাবে পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম বেড়ে গেছে তার ফলে জর্জরিত হয়ে পড়েছি আমরা সকলেই বর্ধিত দামের চিন্তাভাবনাতে। ইতিমধ্যে বেড়ে গেছে রান্নার গ্যাসের দাম। শুধু তাই নয় টাকার দাম ক্রমশ এগোচ্ছে। ইতিমধ্যেই রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া রেপো রেট বাড়ানোর ঘোষণা করে দিয়েছেন।

এই মুদ্রাস্ফীতির মধ্যেই আমজনতার পকেটে আরো একবার তান ফেলার জন্য একাধিক পণ্যকে জিএসটির আওতায় নিয়ে এলো সংশ্লিষ্ট পরিষদ। নিত্য প্রয়োজনীয় বেশ কিছু জিনিসপত্র প্রসারের সুযোগ সুবিধা তুলে নেওয়া হল। ফর স্বরূপ 5% হারে জিএসটি লাগু করা হল বিশেষ কিছু পণ্যের উপর। জানা গেছে এবার প্যাকেট বন্দি ব্র্যান্ডের চাল ডাল আটা গুল দই পনির সহ মাছ-মাংস কেও করের আওতায় আনা হয়েছে।

শুধু তাই নয়, নতুন নিয়ম অনুযায়ী এবার থেকে ব্যাংকের চেক বই পেতে গেলে ১৮% করে দিতে হবে গ্রাহককে। কোনভাবেই যাতে কর ফাঁকি না দেওয়া যায় সেই চিন্তা ভাবনা করে রেখেছে জিএসটি পরিষদ। রাজ্য গুলির মন্ত্রিগোষ্ঠী বেশ কিছু পণ্যের ওপর থেকে কর ছার তুলে নেওয়ার সুপারিশ জানিয়েছিল। এমতাবস্থায় নতুন করে আবার কিছু খাদ্যদ্রব্যে করের বোঝা চাপিয়ে দেওয়া হল।

এদিকে 28 এবং 29 শে জুন চণ্ডীগড়ে চলছে জিএসটি পরিষদের দু’দিনব্যাপী বৈঠক। এই বৈঠকে নেতৃত্ব দিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। বৈঠকে একাধিক বিষয়ের ওপর কর বসানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এবার হাসপাতালে আইসিইউ বাদে যে সমস্ত কক্ষের ভাড়া 5 হাজার টাকার উপরে সেখানে 5 শতাংশ জিএসটি ধার্য করা হবে। পাশাপাশি হোটেলের রুমে 1000 টাকার কম ভাড়ার উপরে 12% করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

ইতিমধ্যে বিভিন্ন রাজ্যের অর্থমন্ত্রীদের একটি গোষ্ঠীকে কর কাঠামো সংশোধনের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। সূত্র অনুযায়ী জানা গেছে বুধবারের বৈঠক অনলাইন গেম ঘোড়দৌঁড় এবং ক্যাসিনোর ওপর 28 শতাংশ কর ধার্য করা নিয়ে আলোচনা করা হবে।