বাজারে এসে গেল মশা তাড়ানোর জন্য মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন! জানুন কতটা কার্যকরী

10
বাজারে এসে গেল মশা তাড়ানোর জন্য মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন! জানুন কতটা কার্যকরী

যতই দামি কয়েল কিংবা লিকুইড ধুপ ব্যবহার করুন না কেন, মশাদের শায়েস্তা করা কার্যত এক কথায় অসম্ভব। এই বর্ষাকালে মশাদের উপদ্রব আরো বাড়ে। মশার কামড় শুধু নয়, মশা থেকে ছড়ানো নানা ধরনের রোগের উপদ্রবও বাড়ে এই সময়। তবে প্রযুক্তি থাকলে সঙ্গে আর চিন্তা কিসের? বাজারে এসে গেল মশা তাড়ানোর জন্য মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন।

গুগল প্লে স্টোর কিংবা গুগল অ্যাপে গেলে আপনি এই ধরনের বেশ কিছু অ্যাপস পাবেন যেগুলো চালু থাকলে নাকি মশারা আপনার আশেপাশে ঘুরতে পারবে না! এমনটাই দাবি করছেন অ্যাপ ডেভেলপাররা। তাদের দাবি এই ধরনের অ্যাপ থেকে কম ফ্রিকোয়েন্সির শব্দ উৎপন্ন হয় যাতে মশা পালিয়ে যায়।

এই শব্দের কম্পাঙ্ক সাধারণত খুবই কম থাকে এবং সাধারণ কোনো মানুষ এর আওয়াজ শুনতে পারেন না। তবে অ্যাপ ডেভলপারদের দাবি ঠিক কতটা যুক্তিযুক্ত? সত্যি সত্যিই কি এমন কোনো এপ্লিকেশন মশা তাড়াতে সহায়ক হতে পারে? এর উত্তর হবে একেবারেই না। যে যায় দাবি করুক না কেন এই অ্যাপ্লিকেশনগুলো মশা তাড়াতে কিন্তু একেবারে ব্যর্থ।

এই ধরনের অ্যাপ্লিকেশন খুললেই আপনি প্রচুর বিজ্ঞাপন দেখতে পারবেন যা আপনাকে বিরক্ত করে দেবে। এই অ্যাপের প্রধান উদ্দেশ্যই হলো বিজ্ঞাপন দেখানো যা দিয়ে ডেভলপাররা উপার্জন করতে পারবে। কিন্তু এই অ্যাপ্লিকেশন একেবারেই কার্যকর নয়। এই অ্যাপ্লিকেশন আপনার ফোনে ভাইরাস ইন্সটল করে দিতে পারে। তাই অবশ্যই সাবধান হতে হবে।