গোবিন্দার বাড়িতে পরিচারিকার কাজ করতেন কোটিপতির মেয়ে! জানুন কারন

29
গোবিন্দার বাড়িতে পরিচারিকার কাজ করতেন কোটিপতির মেয়ে! জানুন কারন

৯০ এর দশকের কমেডিয়ান হিরো গোবিন্দার প্রেমে পাগল ছিলেন হাজার হাজার মহিলা। এদের মধ্যে অনেকেই তাকে প্রেম নিবেদন করেছেন, তাকে বিয়েও করতে চেয়ে ছিলেন। তবে তার সকল মহিলা ফ্যানদের ছাপিয়ে গিয়েছিলেন মুম্বাইয়ের এক কোটিপতি ব্যবসায়ীর মেয়ে। গোবিন্দাকে প্রেম নিবেদনের জন্য তিনি সরাসরি তার বাড়িতে উপস্থিত হন। নিজের পরিচয় লুকিয়ে গোবিন্দার বাড়িতে পরিচারিকার কাজ নেন।

তার পরিকল্পনা ছিল এভাবেই গোবিন্দার সঙ্গে সখ্যতা গড়ে তুলে এক সময় তিনি তাকে নিজের মনের কথা জানিয়ে দেবেন। বিয়ের প্রস্তাব রাখবেন। আর সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়িত করার জন্য দীর্ঘদিন গোবিন্দার বাড়িতে কাজের মেয়ে সেজে বাসন মেজেছিলেন ওই কোটিপতির মেয়ে। এই গল্পটা চেনা চেনা লাগছে কি? বাস্তব জীবনের এই ঘটনা আদতে যেন হুবহু সিনেমার প্রেক্ষাপট থেকে তুলে আনা। করিশমা কাপুর এবং গোবিন্দা অভিনীত ‘হিরো নাম্বার ওয়ান’ ছবিতে গোবিন্দা ঠিক একইভাবে নিজের প্রেমিকাকে প্রেম নিবেদন করেছিলেন!

ওই ছবিতে গোবিন্দা কোটিপতি ধনকুবেরের ছেলের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন তিনি প্রেমিকার বাড়িতে চাকরের কাজ নিয়েছিলেন। তবে তিনি ভাবতেও পারেননি যে বাস্তবে তার সঙ্গেই ঘটে যাবে এমন ঘটনা! সত্যি সত্যিই ওই কোটিপতির মেয়ে ভেবেছিলেন যে সিনেমার মতোই গোবিন্দার বাড়িতে পরিচারিকার কাজ করে তাকে প্রেম নিবেদন করবেন। তবে তার সেই পরিকল্পনা ব্যর্থ হয়ে গেল যখন একদিন গোবিন্দার স্ত্রী সুনিতা বাবার সঙ্গে তার কথোপকথন শুনে ফেলেন।

সুনিতার সন্দেহ হওয়াতে তিনি গোবিন্দাকে সমস্ত কিছু জানান এবং গোবিন্দা এরপর ওই মহিলাকে এই বিষয়ে জিজ্ঞেস করে আসল ঘটনা জানতে পারেন। এরপর অবশ্য ওই কোটিপতি ব্যবসায়ীর সঙ্গে যোগাযোগ করে মেয়েকে আবার তার কাছে ফিরিয়ে দেওয়া হয়। গোবিন্দা আগে থেকেই বিবাহিত ছিলেন। তবে কেরিয়ারের স্বার্থে দীর্ঘদিন নিজের বৈবাহিক জীবনের স্টেটাস লোকচক্ষুর অন্তরালে রেখেছিলেন তিনি। সেকথা ওই মহিলা জানতেন না। যখন তিনি তা জানতে পারেন তখন স্বভাবতই তার মন ভেঙে যায়। ভাঙ্গা মন নিয়েই বাবার সঙ্গে বাড়ি ফিরে যান তিনি। গোবিন্দা তার এমন পাগল প্রেমিকার নাম কখনো প্রকাশ করেননি। তবে একবার একটি সাক্ষাৎকারে তার জীবনে ঘটে যাওয়া এমন অদ্ভুত ঘটনার কথা সর্বসমক্ষে তুলে ধরেন তিনি।