ভারতে আবারও ২৬/১১ এর মতো ভয়ঙ্কর হামলা চালানোর পরিকল্পনা জঙ্গীদের, রুখে দিল সেনাবাহিনী

8
ভারতে আবারও ২৬/১১ এর মতো ভয়ঙ্কর হামলা চালানোর পরিকল্পনা জঙ্গীদের, রুখে দিল সেনাবাহিনী

২৬/১১ এর সেই ভয়ঙ্কর স্মৃতি আরও একবার বাস্তবায়িত হতে চলেছিল। সেই দুঃসহ দিনের মতো আবারো দেশের বহু মানুষ অসহায় ভাবে প্রাণ হারাতেন, যদি না ভারতীয় সেনা জওয়ানরা ষড়যন্ত্রের মূল চক্রীদের নিকেশ করতে সক্ষম হতেন। সম্প্রতি, জম্বু কাশ্মীরের নগ্রেটা এলাকায় তল্লাশি অভিযান চালিয়ে পাকিস্তানের মদতপুষ্ট কুখ্যাত জঙ্গী সংগঠন জয়েশ ই মোহাম্মদের চার সক্রিয় সদস্যকে খতম করেছে ভারতীয় সেনা।

ভারতীয় সেনা সূত্রে খবর, ওই চার জঙ্গী একটি ট্রাকের মধ্যে লুকিয়ে উপত্যাকা অঞ্চলে অনুপ্রবেশ চালানোর চেষ্টা করছিল। কিন্তু ভারতীয় সেনার তৎপরতার দরুন তাদের সতর্ক দৃষ্টি এড়িয়ে জঙ্গিদের পরিকল্পনা সফল হয়নি। তাদের সেই ষড়যন্ত্র সফল হওয়ার আগেই ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর কাছে তারা ধরা পড়ে যায়। এই ঘটনার পরেই কেন্দ্রীয় নেতৃত্বরা সরকারি গোয়েন্দাদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন।

এদিনের বৈঠকে কেন্দ্রের তরফ থেকে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল এবং বিদেশ সচিব। গোয়েন্দা বিভাগের শীর্ষ কর্তারা কেন্দ্রকে জানিয়েছেন, পাক মদতপুষ্ট জঙ্গীরা ভারতে আবারও ২৬/১১ এর মতো ভয়ঙ্কর হামলা চালানোর পরিকল্পনা করছে। কেন্দ্রে তরফ থেকে তাই ভারতীয় সেনা এবং সীমান্তরক্ষী বাহিনীকে আরো বেশি সর্তকতা অবলম্বনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, উপত্যকা অঞ্চলের নগ্রেটা এলাকায় জঙ্গী এবং ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর মধ্যে সংঘটিত তিন ঘণ্টাব্যাপী সংঘর্ষের শেষে জয়েশের চার জঙ্গিকে খতম করতে সমর্থ হয় ভারতীয় সেনাবাহিনী। জঙ্গিরা অবশ্য ভারতীয় সেনার উপর অত্যাধুনিক অস্ত্র শস্ত্র এমনকি গ্রেনেড হামলা চালায়। জঙ্গিদের কাছ থেকে ১১টি একে ৪৭ রাইফেল, তিনটি পিস্তল, ২৯টি গ্রেনেড, মোবাইল ফোন, কম্পাস এবং বেশ কয়েক রকমের বিস্ফোরক উদ্ধার করেছে ভারতীয় সেনা। জঙ্গী সন্ত্রাসবাদ রুখতে এই অভিযান ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর কাছে নিঃসন্দেহে একটি বড় সাফল্য।