পঞ্চমীর দিন থেকেই রাজ্যে শুরু হবে বৃষ্টিপাত, পর্যটকদের উদ্দেশ্যে সতর্কবার্তা জারি করল আবহাওয়া দপ্তর

32
পঞ্চমীর দিন থেকেই রাজ্যে শুরু হবে বৃষ্টিপাত, পর্যটকদের উদ্দেশ্যে সতর্কবার্তা জারি করল আবহাওয়া দপ্তর

এ বারের পুজো যেন সব দিক থেকেই বাধাপ্রাপ্ত হচ্ছে। একে তো মলমাসের দরুন পূজা প্রায় একমাসের পিছিয়ে গিয়েছে। তার উপর আবার করোনা মহামারীর জেরে পুজোর আনন্দে কাটছাঁট হয়েছে। তাতেও শান্তি নেই, এখন আবার চোখ রাঙাচ্ছে বর্ষা। এবারের পূজোতে যে বৃষ্টি হবেই সে সম্পর্কে আগেই সতর্ক করেছেন আবহাওয়াবিদরা। পঞ্চমী থেকেই নাকি শুরু হতে চলেছে দুর্যোগ।

মঙ্গলবার আবহাওয়ার সতর্কবার্তা হিসেবে জানানো হলো, পঞ্চমীর দিন থেকেই রাজ্যে বৃষ্টিপাত শুরু হয়ে যাবে। এর কারণ বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপ। যে নিম্নচাপটি আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যেই নাকি আরও বেশি সক্রিয় হয়ে উঠতে চলেছে। যার জেরে উপকূলবর্তী অঞ্চলে অতি ভারী বর্ষণের সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, পর্যটকদের উদ্দেশ্যেও সতর্কবার্তা জারি করেছে আবহাওয়া দপ্তর।

বিশেষজ্ঞদের মতে, সমুদ্র সৈকতের ঢেউ একদিন উত্তাল থাকবে। নিম্নচাপ গভীর থেকে গভীরতর হলে তার গতিবেগ ঘন্টায় ২৫ – ৩০ কিলোমিটার থেকে আরও বেড়ে ৫০ – ৬০ কিলোমিটার অব্দি পৌঁছতে পারে। ২২ থেকে ২৫শে অক্টোবর পর্যন্ত অর্থাৎ ষষ্ঠী থেকে নবমী অব্দি ভারী বর্ষণের সতর্কবার্তা জারি করা হচ্ছে। পূর্ব মেদিনীপুর, পশ্চিম মেদিনীপুর, হাওড়া, হুগলি, কলকাতা, উত্তর ২৪ পরগনা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা ও নদিয়ায় মত জেলাগুলিতে অতি ভারী বর্ষণের পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে।

মৌসম বিভাগ সূত্রে খবর, বাকি এলাকাগুলিতে বিক্ষিপ্তভাবে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে। নিম্নচাপ আরও গভীর হলে হাওয়ার গতিবেগ বাড়বে। ফলে ঝোড়ো হাওয়ার সম্ভাবনার কোথাও জানাচ্ছে আবহাওয়া দপ্তর। তাই প্যান্ডেল নিয়ে পুজো উদ্যোক্তাদের সতর্ক করা হয়েছে।