চীনের সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠক তবে পাকিস্তানের সঙ্গে বৈঠকে বসতে রাজি নয় ভারত, ক্ষুব্ধ মেহবুবা মুফতি

9
চীনের সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠক তবে পাকিস্তানের সঙ্গে বৈঠকে বসতে রাজি নয় ভারত, ক্ষুব্ধ মেহবুবা মুফতি

“সীমান্ত সম্পর্কিত বিবাদ মেটানোর জন্য পাকিস্তানের সঙ্গে কোনো রকম আলোচনায় বসতে রাজি নয় ভারত। পাকিস্তান মুসলিম অধ্যুষিত রাষ্ট্র, এটাই কি তার কারণ?”, জম্মু-কাশ্মীরের নির্বাচন চলাকালীন রবিবার কেন্দ্রীয় সরকারের উদ্দেশ্যে এমন প্রশ্নই ছুঁড়ে দিলেন জম্মু ও কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা পিডিপি নেত্রী মেহবুবা মুফতি। মেহেবুবার অভিযোগ, চীন যখন ভারতের ভূখণ্ড দখল করে নিতে অগ্রসর হচ্ছে তখন চীনের সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠকে বসছে নয়াদিল্লি!

তাহলে পাকিস্তানের প্রতি এই বিরূপতা কেন? প্রশ্ন তুললেন মেহবুবা। উল্লেখ্য, গত শনিবার থেকেই উপত্যকা অঞ্চলে জেলা উন্নয়ন পরিষদের নির্বাচন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। গতবছর কাশ্মীরের উপর থেকে ৩৭০ ধারা বিলোপের পর চলতি দফার নির্বাচনই উপত্যকার প্রথম নির্বাচন। ফলে স্বভাবতই এই নির্বাচন উপত্যকার রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে বেশ তাৎপর্যপূর্ণ।

নির্বাচনের প্রেক্ষাপটে রবিবার এক সাংবাদিক সম্মেলনে অংশগ্রহণ করে কেন্দ্রীয় বিজেপি সরকারের প্রতি আক্রমণাত্মক ভঙ্গি একাধিক প্রশ্ন তুললেন মেহেবুবা। তার প্রশ্ন, বিজেপি বলে মুসলিমরা নাকি পাকিস্তানি, শিখেরা খালিস্তানি, সমাজবাদী পার্টি নাকি আরবান নকশাল! তাই যদি হবে, তাহলে ভারতীয় কারা? কেবল বিজেপি পার্টি সমর্থকরা? মেহেবুবার অভিযোগ, কেন্দ্রীয় সরকার বিরোধী দলগুলিকে দমন করে রাখার চেষ্টা করছে।

শুধু তাই নয়, ইডির কার্যকলাপের উপরেও প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। মেহবুবা বলেছেন, পিডিপি সমর্থকদের উপর অন্যায় ভাবে অত্যাচার চালানো হচ্ছে। ৩৭০ ধারা বিলোপ প্রসঙ্গেও কেন্দ্রের প্রতি ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন তিনি। তার অভিযোগ, ৩৭০ ধারাই যদি উপত্যকার সকল সমস্যার সমাধান হবে, তাহলে কাশ্মীরে এত সেনা মোতায়েন করে রাখার কি প্রয়োজন?