ক্রেতাদের স্বস্তি দিতে দুটি সিএনজি মডেল লঞ্চ করতে চলেছে মারুতি! দেখে নিন ফিচারস

11
ক্রেতাদের স্বস্তি দিতে দুটি সিএনজি মডেল লঞ্চ করতে চলেছে মারুতি! দেখে নিন ফিচারস

মারুতি, টাটার মতো কোম্পানি পেট্রোল-ডিজেল মহার্ঘ হওয়ায় এবার সিএনজির দিকে ঝুঁকছে। সম্প্রতি মারুতি ভারতীয় ক্রেতাদের স্বস্তি দিতে আরও দুটি সিএনজি মডেল লঞ্চ করতে চলেছে।

ক্রেতাদের পেট্রোল-ডিজেলের আকাশছোঁয়া দামের ফলে গাড়ি চালাতেই নাভিশ্বাস উঠছে। সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে ইলেকট্রিক গাড়ির স্বপ্ন দেখাচ্ছে বিভিন্ন গাড়ি নির্মাণকারী সংস্থাগুলি।

তবে ভারতের বুকে ইলেকট্রিক গাড়ি সবার জন্য নয়। বেশি মাইলেজ হলেও গাড়ির দাম শুনে আর কেনার কথা ভাবেন না ক্রেতা। সেই ক্ষেত্রে একটি নির্দিষ্ট শ্রেণির ক্রেতাদের মধ্যেই জনপ্রিয়তা পেয়েছে ‘ইভি’ মডেল। সেখানে দাঁড়িয়ে ভারতে সিএনজি গাড়ির সংখ্যা বাড়াতে চলেছে মারুতি।

মারুতি সুজুকি দেশে বরাবরই সিএনজি মডেলে জনপ্রিয়তা পেয়েছে। শোনা যাচ্ছে, চলতি বছরেই তাদের মারুতি সুজুকি ডিজায়ার সিএনজি লঞ্চ করবে কোম্পানি। উৎসবের সময় লঞ্চ হতে পারে এই গাড়ি।

সূত্রের খবর অনুযায়ী, মধ্যবিত্ত ক্রেতাদের ক্ষেত্রে খুবই সাশ্রয়ী হবে এই সিএনজি মডেল। গাড়ির পেট্রোল ভেরিয়েন্টের থেকে (৯০,০০০-১,০০,০০০) টাকা বেশি দাম হতে পারে এই সিএনজি মডেলের। তবে দাম বেশি হলেও ৩০-৩২ কিলোমিটার মাইলেজ দেবে এই গাড়ি।

এই বছরেই মারুতি সুজুকি সেলরিওর নয়া মডেল আনছে কোম্পানি। নয়া ডিজাইনের সঙ্গে থাকছে এর সিএনজি মডেল। তবে আপডেটেড মডেল হলেও পুরেনো সেলেরিওর অনেক পার্স ব্যবহার করতে পারে মারুতি। চলতি মডেলের থেকে মাইলেজও বেশি দেবে এই গাড়ি।

তবে ডিজায়ারের মতোই এই গাড়ির ক্ষেত্রেও ক্রেতাকে (৯০,০০০-১,০০,০০০)টাকা বেশি দিতে হবে। সূত্রের খবর, কোম্পানির আগামী দুটি গাড়িতেই ১.২ লিটারের ইঞ্জিন ব্যবহার করা হবে। যা ১১৩ এনএম-এর টর্ক ছাড়াও ৯০পিএস-এর পাওয়ার দেবে। তবে মারুতি একা নয়। এই সিএনজি বাজারে নাম লিখিয়েছে টাটা।