মাওবাদী হামলার নেপথ্যে ছিল মাওবাদী নেতা মাদভী হিদমা

12
মাওবাদী হামলার নেপথ্যে ছিল মাওবাদী নেতা মাদভী হিদমা

গত শনিবার রাতে ছত্রিশগড়ের বিজাপুর অঞ্চলের জঙ্গল মাওবাদী এবং ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর গুলির লড়াইয়ে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। ঘটনার জেরে প্রাণ হারিয়েছেন ভারতীয় নিরাপত্তা রক্ষী বাহিনীর ২২ জন সেনা জওয়ান। পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলির পাশাপাশি আইডি বিস্ফোরণ চালায় ছত্রিশগড়ের মাওবাদীরা। এই ভয়াবহ মাওবাদী হামলার নেপথ্যে মাওবাদী নেতা মাদভী হিদমার হাত রয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

মাদভী হিদমা নামটি ভারতীয় গোয়েন্দা বিভাগের মোস্ট ওয়ান্টেডের তালিকায় রয়েছে। এই মাওবাদী নেতার মাথার দাম ৪০ লক্ষ টাকা ধার্য করা হয়েছে। ৪০ বছর বয়সী এই মাওবাদী নেতা গেরিলা বাহিনীর দক্ষ প্রশাসক হিসাবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে পেরেছে। তার হাতেই মাওবাদীদের নতুন নকশা তৈরি হয়েছে। তার আমলে মহিলারাই মাওবাদী সংগঠনের সর্বাধিক সদস্য হয়ে উঠেছেন।

এই মাওবাদী নেতাকে ধরতেই গত শনিবার ছত্রিশগড়ের জঙ্গলে অভিযান চালান সিআরপিএফ, কোবরা, ছত্তিশগড় পুলিশের ডিস্ট্রিক্ট রিজার্ভ গার্ড এবং অন্য বাহিনীর প্রায় ১৫০০ জওয়ান। তবে মাওবাদীদের কাছে এই খবর আগেভাগেই পৌঁছে গিয়েছিল। যে কারণে তারা প্রস্তুতি নিয়েই রেখেছিল বলে খবর মিলেছে। তাই ভারতীয় নিরাপত্তা রক্ষী বাহিনী জঙ্গলে ঢুকলেই চারিদিক থেকে তাদের উপর গুলি বৃষ্টি হতে থাকে।

দুপক্ষের গুলির লড়াইয়ে ২২ জন সেনা জওয়ান ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান। এছাড়াও আহত হয়েছেন বহু। তবে প্রশাসনের দাবি, মাওবাদীদেরও অন্তত ২৫-৩০ জনকে খতম করা সম্ভব হয়েছে। প্রশাসনের অনুমান, হিদমা ওই জঙ্গলে রয়েছে বলে ভারতীয় সেনা জওয়ানদের বিভ্রান্ত করা হয়েছিল। পুলিশের উপর হামলা চালানোর উদ্দেশ্যে আগে থেকেই ওত পেতে বসে ছিল মাওবাদীরা।