জন্মহার নিয়ন্ত্রণে কড়া পদক্ষেপ মনিপুর সরকারের

9
জন্মহার নিয়ন্ত্রণে কড়া পদক্ষেপ মনিপুর সরকারের

কয়েক দিন আগেই একটা বৈঠক হয়। এবং সেই মন্ত্রিসভার বৈঠকে ঠিক করা হয় যে মনিপুরে গড়ে তোলা হবে স্টেট পপুলেশন কমিশন। এই নিয়ে একটি অর্ডিন্যান্স ও জারি করাও হবে। আধিকারিকরা জানান, সেখানে কী কী নীতি থাকবে তা ঠিক করে অনুমোদনের জন্য পাঠানো হবে রাজ্যপালের কাছে। রাজ্যপাল অনুমতি দিলেই ওই অর্ডিন্যান্স জারি করা হবে। ওই সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগেই সেখানে জনসংখ্যা কমিশন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এমত অবস্থায় মণিপুরের সরকার ঠিক করেন যে জন্মহার নিয়ন্ত্রণের জন্য তিনি কিছু সিদ্ধান্ত নেবেন। আর তাই ওই বৈঠকের পরেও তিনি ঘোষণা করেন যে পরিবার পরিকল্পনা কার্যকর করতে তিনি বলেন যে মনিপুরে কোনো পরিবারের যদি চারজনের বেশি সন্তান থাকে তাহলে সে সরকারের সমস্ত রকম সাহায্য থেকে বঞ্চিত থাকবে। না জুটবে কোনো সরকারি চাকরি না জুটবে কোনো সরকারি অনুদান।

শুধু তাই নয় মণিপুরের মুখ্যমন্ত্রী এন বিরেন সিংয়ের সভাপতিত্বে হওয়া ওই বৈঠকে ঠিক হয় যে সেখানে মদ বিক্রি, মদ্য পান করা নিয়ে একটি নতুন নীতি করা হবে। এই নিয়ে একটি কমিটি গঠন করা হবে। ওই কমিটিতে থাকবেন চিকিৎসক, সেখানের আবগারি বিভাগের আধিকারিক, মনিপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক এবং FSSAI -র প্রতিনিধিরাও। ওই কমিটি মদ নিয়ে একটি নীতি করবেন। মদ নিয়ে নীতি গঠন করা হবে সেখানের মহিলাদের সঙ্গে কথা বলে। সব স্টেক হোল্ডারদের সাথেও আলোচনা করা হবে বলে জানানো হয়।

এছাড়াও মনিপুরে প্রবেশের ক্ষেত্রেও কিছু নিয়ম আছে সেখানেও কিছু বদল আনা হয়েছে। রাজ্যের বাসিন্দাদের মণিপুরে আসার জন্য নিতে হয় ইনার লাইন পারমিট। আর এই আইএলপি নেওয়ার ক্ষেত্রে এবার থেকে আধার কার্ড লাগবে তাতে মোবাইল নম্বর সংযুক্ত থাকা জরুরি বলেও নতুন নিয়মে বলা হয়েছে। মণিপুরের একটি প্রধান লেক হলো লোকটাক লেক। আর এই হ্রদের একটি বড় অংশ জবরদখল হয়ে গিয়েছে। তাই এই লেককে দখলমুক্ত করা এবং উচ্ছেদ করার জন্য একটি কমিটি করাও হচ্ছে। স্বরাষ্ট্র দফতর, সহ বিভিন্ন দফতরে কর্মী নিয়োগ করা হবেও ঠিক করা হয়েছে। কোথায় কত শুন্যপদ পূরণ করা হবে তাও ঠিক করা হয়েছে এই বৈঠকে বলে জানা গিয়েছে।