মকর সংক্রান্তি মানেই পিঠে পুলি! তবে পিঠেকে ইংরাজিতে কি বলে জানেন কি?

11
মকর সংক্রান্তি মানেই পিঠে পুলি! তবে পিঠেকে ইংরাজিতে কি বলে জানেন কি?

মকর সংক্রান্তি মানেই যেই শব্দটা সবার প্রথম মনে আসে সেটা হলো পিঠে পুলি। বাড়ির মা ঠাকুমারা চালের গুড়ি, দুষ, নলেন গুড়, নারকেলের পুর সব দিয়ে নানান রকমের নানান স্বাদের পিঠে পুলি বানান। সে কত নাম পিঠের, চিতই পিঠে, দুধ পুলি, পাটি সাপটা, ভাজা পুলি, গোকুল পিঠে, সরু চকলি।

পিঠে খেতে ভালোবাসেন না এমন বাঙালি পাওয়া মুশকিল। তবে শুধু বাঙালি নয় এখন অবাঙ্গলিরাও পিঠে খান। কিন্তু এখন প্রশ্ন হলো আমরা বাংলায় যেটাকে পিঠে বলি সেটাকে যদি বলা হয় ইংরেজিতে কি বলে, কি বলবেন? অনেকে পাই বলেন। তবে বিশেষজ্ঞরা বলেন, পিঠের আলাদা করে নাম নেই অনেকেই এই ধরণের পিঠেকে কেক বলে থাকেন। আবার অনেকেই বলেন পিঠের ইংরেজি নাম নাকি ‘ প্যাটি ‘। এই নিয়ে নানান মন্তব্য থাকলেও বাঙালি তার পিঠে শব্দতেই অভ্যস্ত।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, মকর সংক্রান্তি মানে শুধুই পার্বণ বা পিঠে পুলি নয়। মকর সংক্রান্তি মানে ঘুড়ি ওড়ানোর ধুমও। বাঙালিদের মধ্যে এই দিন উপলক্ষে একটা আলাদাই ক্রেজ থাকে। এইদিন অধিকাংশ ছেলে নিজেদের ব্যাস্ততম সিডিউল থেকে কিছুটা সময় বের করে ঠিক ছাদে ঘুড়ি লাটাই নিয়ে উঠে পড়ে। আকাশের দিকে তাকিয়ে চাঁদিয়াল, পেটকাটির বহর দেখে নিজেকে রোখা যায়না।

এখন অনেক ঘুড়ি প্রেমী আজ রীতিমত ছুটি নিয়ে এই দিনটা এভাবে সেলিব্রেট করেন। এমনও অনেক জায়গায় আজ গান বাজনা বক্স বাজিয়ে ঘুড়ি ওড়াতে পিকনিক করতে দেখা যায়। মোট কথা মকর সংক্রান্তি বাঙালির একটা ইমোশন একটা সংস্কৃতি। যা আজও বাঙালি নিজেদের মধ্যে ধরে রেখেছে।