মাইনেতে পোষাচ্ছে না তার! প্রধানমন্ত্রীত্বের পদ ছেড়ে দিতে চাইছেন ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন

5
মাইনেতে পোষাচ্ছে না তার! প্রধানমন্ত্রীত্বের পদ ছেড়ে দিতে চাইছেন ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন

নিজের প্রধানমন্ত্রীত্বের পদ ছেড়ে দিতে চাইছেন ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। কারণ ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তিনি যে মাইনে পান, সেই মাইনেতে পোষাচ্ছে না তার। তার বক্তব্য অনুসারে, প্রধানমন্ত্রী না থেকে অন্য কাজ করলেই বরং বর্তমানের থেকে বেশি টাকা উপার্জন করতে পারবেন তিনি। কারণ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তাকে যে মাইনে দেওয়া হয়, তাতেও নাকি তার সংসার চলে না। তাই জন্য তিনি নাকি ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার ভাবনা চিন্তা করছেন।

সম্প্রতি, একটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন পেশ করা হয়েছে। এই প্রতিবেদন মারফত ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রীর এমন উদ্ভট ইচ্ছার কথা সামনে এসেছে। প্রধানমন্ত্রীত্বের পদ থেকে ইস্তফা দিতে ইতিমধ্যেই নাকি ঘনিষ্ঠ মহলে আলোচনা করতে শুরু করে দিয়েছেন তিনি। বর্তমানে ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে বছরে এক লক্ষ পাউন্ড বেতন পান বরিস জনসন।

কিন্তু এই মাইনেতে খুশি নন তিনি। এতে সাংসারিক চাহিদাও মিটছে না। তিনি দাবি করেছেন, এর আগে একটি পত্রিকায় শুধু কলাম লিখেই তিনি বার্ষিক ২ লক্ষ ৭৫ হাজার পাউন্ড আয় করতেন। শুধু তাই নয়, মাসে মাত্র দুটি করে সেমিনার অ্যাটেন্ড করে বক্তৃতা দিয়েই তার আয় হতো প্রায় ১ লক্ষ ৬০ হাজার পাউন্ড। অর্থাৎ তিনি এর আগে বর্তমানের তুলনায় বেশ কয়েক গুণ বেশি টাকা উপার্জন করতেন।

তাই আবার পুরনো ফর্মেই ফিরতে চান তিনি। তিনি আরো জানিয়েছেন, তার ছয় সন্তানের পড়াশোনার খরচ, প্রাক্তন স্ত্রীর ভরণ পোষণের খরচ প্রতিমাসে যা খরচ হয়, সেই অর্থ চাহিদা তার বেতন থেকে পূরণ হচ্ছে না। করোনা মহামারী নিয়ন্ত্রণে এলে এবং ব্রেক্সিট সংক্রান্ত সমস্ত সমস্যার সমাধান ঘটলে তিনি এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন বলে জানা গেছে।