একুশের লড়াইয়ে ফের একবার দিদির পাশে কোমর বেঁধে দাঁড়াচ্ছেন মদন মিত্র

6
একুশের লড়াইয়ে ফের একবার দিদির পাশে কোমর বেঁধে দাঁড়াচ্ছেন মদন মিত্র

আসন্ন একুশের লড়াইয়ে দিদির পাশে কোমর বেঁধে দাঁড়াচ্ছেন “বাংলার ক্রাশ”, “মদনদা”। একুশের লড়াইয়ের আগে তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা ঘোষণার দিনে জানা গেল আসন্ন একুশের বিধানসভা নির্বাচনের লড়াইয়ে তৃণমূলের হয়ে কামারহাটি কেন্দ্র থেকে লড়বেন মদন মিত্র। প্রসঙ্গত সারদা কান্ডের সঙ্গে নাম জড়ানোর পর শেষমেষ ফের রাজনীতির দুনিয়ায় পুর্ণদ্যমে কামব্যাক করতে চলেছেন মদন মিত্র।

এর আগে অবশ্য ২০১৬ সালের কামারহাটিতেই তৃণমূলের প্রার্থী হিসেবে দাঁড়িয়ে ছিলেন জেলবন্দি মদন মিত্র। তবে তখন বামফ্রন্ট প্রার্থী মানস মুখোপাধ্যায়ের কাছে হেরে গিয়েছেন তিনি। তবে মদন মিত্র কিন্তু থেমে থাকেননি। বিগত কয়েক বছরে রাজনীতির প্রাঙ্গনে তাকে সেভাবে দেখা না গেলেও তার প্রচারের মাধ্যম ছিল নেট দুনিয়া। নেট দুনিয়া মারফত বহুভাবেই জনসংযোগ বজায় রাখার লড়াই চালিয়ে গিয়েছেন তিনি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় “মদন মিত্র লাইভ” কিন্তু বেশ গুরুত্ব পেয়েছে। তার অনুরাগীদের সংখ্যা এতদিনে বেড়েছে বৈ কমেনি। মদন মিত্রের এই জনপ্রিয়তাকেই কার্যত হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করতে চাইছে তৃণমূল। এতকিছুর পরেও অটুট রয়ে গিয়েছে জনসমক্ষে মদন মিত্রের গ্রহণীয়তা। তাই ফের একবার লড়াইয়ের সুযোগ পাচ্ছেন তিনি।

কিন্তু এতে অবশ্য সমালোচকদের তরজা থেমে থাকেনি। তৃণমূলের প্রার্থী হিসেবে মদন মিত্রকে দাঁড় করানো হলেও তার সাফল্য নিয়ে আগাম সন্দেহ প্রকাশ করছেন অনেকেই। তবে তাতে থোড়াই কেয়ার নেটদুনিয়ায় “ফেমাস” মদন মিত্র এখন কার্যত সব ভুলে দিদির হয়ে প্রচারেই মন দিয়েছেন।