সংক্রমণ আটকাতে বাংলাদেশে জারি হচ্ছে লকডাউন

8
সংক্রমণ আটকাতে বাংলাদেশে জারি হচ্ছে লকডাউন

ভারতের পড়শী দেশ বাংলাদেশ এবার ফের করোনা হানা দিয়েছে, আর যার ফলেই আগামী সোমবার থেকে বাংলাদেশে চালু হচ্ছে সারাদেশে লকডাউন। সাধারণ মানুষের কথা মাথায় রেখেই হাসিনা সরকার এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। করোনার সেকেন্ড ওয়েভ যেভাবে বিভিন্ন জায়গায় হানা দিচ্ছে, তাতে আবার করুন অবস্থা যাতে তৈরি না হয় সেইজন্যই আগের থেকে কড়া ব্যবস্থা।

ভারতে এখনো এমন ধরনের সিদ্ধান্ত নেওয়া না হলেও বিভিন্ন রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় ইতিমধ্যেই নাইট কার্ফু জারি করা হয়েছে। যার মধ্যে মহারাষ্ট্র অন্যতম, শোনা যাচ্ছে চিকিৎসক ও বিশেষজ্ঞদের সাথে বৈঠক করে মহারাষ্ট্র পূর্ণ লকডাউন এর সিদ্ধান্ত নিতে পারে ঠাকরে সরকার। তবে লকডাউন এর কারণে অর্থনীতির উপর যাতে কোনো প্রভাব না পড়ে, সেই কারণে কল-কারখানা স্বাভাবিক নিয়মেই চালানো হবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ সরকার।

কল কারখানা চালু রাখা নিয়ে তারা জানিয়েছেন, এমনিতেই আগের বছর কল কারখানা বন্ধ করে শ্রমিকদের ও দেশের অর্থনীতির ওপর বিশাল প্রভাব পড়েছিল, সবকিছু ধীরে ধীরে ঠিক হচ্ছিল কিন্তু এর মধ্যেই ফের কল কারখানা বন্ধ করলে শ্রমিকদের বাড়ি ফিরে যেতে হবে ও দেশের অর্থনীতির উপর ব্যাপক প্রভাব পড়বে। তাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিভিন্ন নিয়ম কানুন মেনে যাতে কল-কারখানার কাজকর্ম চালু রাখা যায় সেই চেষ্টা করা হচ্ছে।

এই ধরনের খারাপ অবস্থা ভারতীয় দেখা দিয়েছে ইতিমধ্যে। এখন ভারত সরকার পূর্ণ লকডাউন করবে কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে। তবে করোনার সেকেন্ড ওয়েভ সামলানোর জন্য ইতিমধ্যে উঠে পড়ে লেগেছে বিশেষজ্ঞের দল ভারত সরকার।।