ফের লকডাউন অন্ধ্রপ্রদেশের এই গ্রামে

12
ফের লকডাউন অন্ধ্রপ্রদেশের এই গ্রামে

আজ থেকে দু’‌বছর আগে করোনা ভাইরাস নামক মারণ রোগের জন্য দেশজুড়ে লকডাউনের ঘোষণা করা হয়েছিল। কিন্তু এই গ্রামের বাসিন্দারা করোনার কারণে নয় বরং কুসংস্কারের জন্য নিজেদেরকে লকডাউনের ঘেরাটোপে নিয়ে গিয়েছেন। জানা গিয়েছে, পিশাচ থেকে মুক্তি পেতে অন্ধ্রপ্রদেশের এই গ্রামের বাসিন্দারা লকডাউনের ঘোষণা করেছে।

একমাসের মধ্যে রহস্যজনকভাবে চারজন স্থানীয়ের মৃত্যু হওয়ার পর ভেনেলাভালাসা গ্রামের বাসিন্দারা নিজেদের ওপর লকডাউন চাপিয়ে দিয়েছে। গ্রামবাসীদের বিশ্বাস যে একটি মাংসভোজী রাক্ষস মানুষকে হত্যা করছে। সেই রাক্ষসের থেকে মুক্তি পেতে লকডাউন পালন করছেন গ্রামবাসীরা।

মাংস ভক্ষণকারী রাক্ষস ‘পিশাচ’-এর ভয়ে বাড়ির বাইরে পা রাখছেন না তাঁরা। ভেনেলাভালাসা গ্রামের বাসিন্দারা এক মাসের মধ্যে চার পড়শির রহস্যজনক মৃত্যুর পর ঘরবন্দি হন তাঁরা।

গ্রামটি শ্রীকাকুলাম জেলার সারুবুজ্জিলি মন্ডলের অধীনে অবস্থিত এবং ওড়িশার সঙ্গে সীমান্ত রয়েছে। গ্রামবাসীদের বিশ্বাস, এই লকডাউন অশুভ আত্মার বিরুদ্ধে কাজ করবে। স্থানীয়দের মতে, গত কয়েকদিন ধরে গ্রামের কিছু বাসিন্দা জ্বরে ভুগছেন এবং চারজনের প্রাণ ইতিমধ্যেই চলে গিয়েছে। গ্রামবাসীদের বিশ্বাস যে গ্রামে অশুভ আত্মাদের কারণে এটি ঘটেছে।

গ্রামের সরকারি অফিসও বন্ধ। গ্রামে বহিরাগতদের প্রবেশ নিষিদ্ধ, বাইরের মানুষের প্রবেশ নিষিদ্ধ করতে বেড়া দেওয়া হয়েছে। এমনকী স্কুল ও অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র বন্ধ করে রাখা হয়েছে, যাতে কর্মচারি, স্বাস্থ্য কর্মী ও শিক্ষকরা গ্রামে ঢুকতে না পারেন।