আধার সংশোধনের জন্য মানুষের ভীড় ব্যাঙ্কের সামনে

54
আধার সংশোধনের জন্য মানুষের ভীড় ব্যাঙ্কের সামনে

দেশের বিভিন্ন আইন নিয়ে যে খারাপ অবস্থা, এর ফলে মানুষের মনে এখন অনেকটাই ভয়ের সঞ্চার হয়েছে । এর জন্য মানুষ কোনও ভাবেই নিজেদের কাগজ পত্র ভুল থাকলে ঠিক করার জন্য উদ্যত হয়ে উঠেছে।

বিশেষ করে আধার কার্ডকে বেশী গুরুত্ব দেয় মানুষেরা। আর সেটা ঠিক করার জন্য এবার ব্যাঙ্কের সামনে লম্বা লাইন মানুষের। এখন বিভিন্ন ব্যাঙ্কে এই আধার কার্ড সংশোধন করা হয়, আর তার জন্য এখন মানুষের ভিড় ব্যাঙ্কের সামনে। অনেকের লাইন দেখে সেই ডিমোনিটাইজেশনের কথা মনে পরে যাবে।

এই শীতের রাতে মানুষ নিজের শুধু পরিচয় পত্র ঠিক করার তাগিদে সারা রাত খোলা আকাশের নিচে দাঁড়িয়ে । এখন এতো মানুষের ভীড় জমে যাওয়ার কারণে ব্যাঙ্কের তরফ থেকে কুপনের ব্যবস্থা করেছে, আর সেটা নেওয়ার জন্যই এতো বড় লাইন।

এবার তেহাট্টের রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাঙ্কের সামনে মানুষের লম্বা লাইন, আর সেখানেই মানুষ এই নাগরিকত্ব আইনের জন্য যাতে নিজেদের কিছু না খোয়া যায় তার জন্য আধার সংশোধনের লাইনে দাঁড়িয়ে।

সেখানকার একটি সংবাদ মাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, ব্যাঙ্কলের তরফ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে একদিনে ২০-২৫ টার বেশী আধার সংশোধন করা সম্ভব নয়। এই কথা শোনার পর অনেকের মন্তব্য এই আধার কার্ড করতে তাহলে তো অনেক বছর লেগে যাবে।
এই কথা বলার কারণ হল ব্যাঙ্কের তরফ থেকে যে কুপন দেওয়া হয়েছে সেখানে অনেকের সংশোধনের ডেট পড়েছে ২০২১ সালে। আরও কিছু লোকের ডেট পড়েছে তারও পরে।

এই কারণেই মানুষ এখন অনেকটাই ক্ষুব্ধ। কারণ যার ওপরে নির্ভর করে সরকারী সব কাজকর্ম করা হয়, সেই নথী ঠিক করতে মানুষকে এতো হয়রানীর মধ্যে পরতে হচ্ছে কেনো।

প্রশাসন অন্য কোনও ব্যবস্থা নিচ্ছে না কেনো? যাতে খুব তাড়াতাড়ি সব আধার সংশোধন হয়ে যায়। আর ব্যাঙ্কের সামনে যেসব মানুষের লাইন পড়েছিল তাদের মধ্যে সিংহ ভাগ হল সংখ্যালঘু সম্প্রদায়। আর এতেই প্রমাণ হয়ে যাচ্ছে যে এই আধার কার্ড সংশোধন তাদের কাছে কতটা গুরুত্বপূর্ণ।।