ব্যাঙ্ক বন্ধ হলেই পেয়ে যাবেন ৫ লক্ষ টাকা, ঘোষণা সরকারের

50
ব্যাঙ্ক বন্ধ হলেই পেয়ে যাবেন ৫ লক্ষ টাকা

এখন থেকে ব্যাঙ্ক ডুবলেই পাওয়া যাবে ৫ লক্ষ টাকা। কারণ ১৯৯৩ সালের নিয়ম মেনে এতদিন গ্রাহকদের দেওয়া হত সুরক্ষার জন্য ১ লক্ষ টাকা। আর বাদ বাকি টাকা পাওয়ার জন্য দরখাস্ত দিতে হত। আর সেই দরখাস্তের ওপরে বিচার করে বাকি টাকা দেওয়ার ব্যাপারে বিবেচনা করা হয়।

কিন্তু এখন তেমন নয়। এখন যদি ব্যাঙ্ক দেউলিয়া হয়ে যায়, ব্যাঙ্ক গ্রাহকদের ঠকিয়ে পালিয়ে যায়,তাহলে সুরক্ষার স্বার্থে গ্রাহকদের দেওয়া হবে ৫ লক্ষ টাকা।

গত শনিবার নির্মলা সীতারমণ জানিয়েছেন এই ব্যাপারে। গত শনিবার বাজেট পেশ করে এই কথা জানিয়েছেন। আগে মাত্র সুরক্ষার স্বার্থে ১ লক্ষ টাকা দেওয়া হত, এবার থেকে ৫ লক্ষ করে টাকা দেওয়া হবে গ্রাহকদের।

আর এই টাকা দেবে রিজার্ভ ব্যাংকের সম্পূর্ণ মালিকানাধীন সহায়ক সংস্হা ডিপোজিট ইনসিওরেন্স অ্যান্ড ক্রেডিট গ্যারান্টি কর্পোরেশন। গত শনিবার ঘোষণা হয়ে গেছে এই ব্যাপারে, আর তা মঙ্গলবার থেকেই লাগু হয়ে গেছে। এখন মঙ্গলবারই যদি কোনো ব্যাঙ্ক দেউলিয়া হয়ে যেত, তাহলেই সেই ব্যাঙ্কের গ্রাহকেরা পেয়ে যাবেন ৫ লক্ষ করে টাকা।

আসলে এই টাকার পরিমাণ ১৯৯৩ এর আগে আরও কম ছিল। সেখানে টাকার পরিমাণ ৭০ হাজার ছিল, কিন্তু সেটাকে ৩০ হাজার যোগ করে ১ লক্ষ করা হয়েছে।

আর তারপর থেকেই এই ১ লক্ষ টাকাই দেওয়া হচ্ছিল মানুষকে সুরক্ষার জন্য। তবে এবার থেকে সেই টাকা বাড়িয়ে করা হয়েছে ৫ লক্ষ। গত শনিবারে বাজেট পেশ করা হয়েছে, আর তার ঠিক কয়েকদিনের মধ্যেই সেটা লাগুও হয়ে গেছে। তো ঐ হিসেবে এটা খুবই একটা ভালো বিষয়।।