জেনে নিন সোনার গয়না কিভাবে বাড়িতেই পরিষ্কার করে আগের মতো উজ্জ্বলতা ফিরে পাবেন

7
জেনে নিন সোনার গয়না কিভাবে বাড়িতেই পরিষ্কার করে আগের মতো উজ্জ্বলতা ফিরে পাবেন

প্রতিটা মেয়ের মধ্যে প্রায় সোনার গয়না পড়ার প্রবণতা দেখা যায়। গয়না দীর্ঘদিন পড়ার ফলে গলার মধ্যে কিছু দাগের প্রলেপ পড়তে দেখা যায়। আজকে জানবো ব্যবহার করার পর সোনার গয়না কিভাবে পরিষ্কার করে আগের মতো উজ্জ্বলতা ফিরে পাওয়া যায়।

১) ব্যবহারের পর সোনার গহনা সিঁদুর মাখিয়ে রাখলেও আগের মতোই উজ্জ্বলতা থাকে। কুমড়োর রস্টিও যদি আপনি আপনার সোনার গহনা পরিষ্কার করেন তাহলে নতুনের মতই উজ্জ্বলতা থাকে গহনার।

২) দীর্ঘদিন ব্যবহার করা গহনা যদি এক ঘন্টা হলুদ জলে ডুবিয়ে রেখে তারপর ভালো করে বুঝে নেওয়া হয় তাহলে গহনার উজ্জ্বলতা ফিরে আসে।

৩) যদি আপনার বাড়িতে আপনার সোনা বা রূপোর গহনার উজ্জ্বলতা কমে যায় তাহলে তাতে ভালো করে টুথপেস্ট মাখিয়ে কাপড় দিয়ে মুছে নিন। দেখবেন গহনার উজ্জ্বলতা ফিরে এসেছে।

৪) জলের সাথে নুন আর রিঠা মিশিয়ে তাতে রুপোর গয়না দিয়ে যদি 15 মিনিট ফুটান তাহলে দেখবেন রুপোর গয়না উজ্জ্বলতা ফিরে এসেছে।

৫) পাথরের গহনা টুথপেস্ট দিয়ে পরিষ্কার করলে ঝকঝকে হয়ে যায়। পিতলের বাসন এর ক্ষেত্রে সেলাই মেশিনের সাথে হলুদ মিশিয়ে পিতলের বাসন পরিষ্কার করলে সোনার মত চকচক করে।

৬) রুপোর বাসন কাটা চামচ প্রভৃতি তেতুলগোলা জলে ফুটিয়ে নিন তাহলেই দেখবেন রুপোর বাসন একদম ঝকঝক করছে এক্ষেত্রে মাজার কোনো প্রয়োজন নেই।

৭) সরষের তেল এবং হলুদ গুঁড়া একসঙ্গে মিশিয়ে মাজলে তা চকচকে হয়ে যায়।

৮) এনামেলের বাসোনি অনেক সময় ধরে যায় সেই দাগ তোলার জন্য নেল রিমুভারের জুড়ি মেলা দায়।

৯) চাল ধোয়া জলে স্টিলের বাসন বা কাঁচের বাসন কিছুক্ষণ ডুবিয়ে রেখে তা ধুয়ে ফেললেই ঝকঝক করবে।