জানুন ক্যাটরিনা কাইফের জন্য কীভাবে নষ্ট হয়ে গেল বলিউডের এই অভিনেত্রীর ক্যারিয়ার

12
জানুন ক্যাটরিনা কাইফের জন্য কীভাবে নষ্ট হয়ে গেল বলিউডের এই অভিনেত্রীর ক্যারিয়ার

আমরা শুনেছি পৃথিবীকে দেখতে একজন ব্যক্তির মত অনেকজন হতে পারে, তাও সংখ্যাটা গিয়ে প্রায় ছয়-সাত থামে। একই রকম দেখতে হওয়ার সম্ভাবনা থাকে কিন্তু তার জন্য একে অপরের জীবনে প্রভাব ফেললে তা যথেষ্ট কষ্টদায়ক হয়ে দাঁড়ায়।

তেমন ঘটেছে জারিন এর সাথে। বলিউডের এই অভিনেত্রীর সাথে। বরাবরই তার তুলনায় হয়েছে প্রথম সারির নায়িকাদের সাথে, বিশেষত ক্যাটরিনা কাইফের নাম উল্লেখযোগ্য। সবাই মনে করেন মুখের অবয়ব এবং চেহারার দিকে ও তাদের দুজনের মিল আছে অসম্ভব, কিন্তু বারবারই প্রযোজকরা জারিনকে সুযোগ দিলেও তা মেনে নিতে পারেননি, দর্শকের মনে তুমি দাগ কাটতে তিনি ব্যর্থ।

তাই একটি বক্তব্যের জারিন জানায় যে, বলিউডের পাকাপাকি একটি জায়গায় আছেন ক্যাটরিনা কাইফের, তা নিয়ে কোন সন্দেহ নেই। কিন্তু তাই জন্যেই কার মতো দেখতে অন্য অপর কাউকে দর্শকরা হয়তো মেনে নিতে পারছেন না, বা চাইছেন না। প্রযোজকদের থেকে বারবারই তিনি সুযোগ পেয়েছেন, অনেক প্রযোজকরা মনে করেছে যে, হয়ত জারিন ক্যাটরিনার জায়গাটি নিয়ে নেবেন।

কিন্তু বরাবরই দেখা গেছে, সব বিফল হয়েছে। তাই আস্তে আস্তে তার ক্যারিয়ার অবনতির দিকে যেতে থাকে বলিউডে বলিউড ছাড়াও তামিল তেলেগু পাঞ্জাবি ছবিতেও তিনি কাজ করেছেন তাসের ছবি মুক্তি পেয়েছে ২০১৮ সালে। ছবির নাম ১৯২১ তবে এই ছবিটিও তেমন দাগ কাটতে পারেনি মানুষের মনে। তাই বারবারই জারিনের বক্তব্যে উঠে এসেছে একটি কথা, তার ব্যর্থতার পেছনে ক্যাটরিনার সাথে তুলনা টাই কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে ক্যাটরিনার সাথে তুলনা হবার আরও একটি প্রধান কারণ হলো দু’জনকেই বলিউডে এনেছেন সালমান খান।

দুজনেরই জন্ম সালমান খানের হাত ধরেই বলিউডে। জারিন প্রথম ছবি বীর যা ২০০৯ সালে মুক্তি পায়। সেটি দিয়েই তিনি বলিউডে পা রেখেছিলেন, কিন্তু তা মানুষের মনে দাগ কাটতে পারেনি। এর পরে তিনি অনেকগুলি মুভিতে কাজ করেছেন সেগুলি হল আকসার টু, হেট স্টোরি থ্রি, রেডি, হাউসফুল টু ইত্যাদি। কিন্তু কোনো কিছুতেই তার কেরিয়ার গ্রাফ উন্নতির দিকে যায় নি। আমরা এরকম বহু অভিনেত্রী বলিউডে পেয়েছি, যারা সময়ের স্রোতে হারিয়ে গেছেন। খুব একটা সাফল্য লাভ করতে পারেনি তাদের ক্যারিয়ার।