জানুন কীভাবে নিজের অভিনয় দক্ষতা দিয়ে দর্শকের মনে জায়গা তৈরি করেছেন তাপস কন্যা সোহিনী পাল

12
জানুন কীভাবে নিজের অভিনয় দক্ষতা দিয়ে দর্শকের মনে জায়গা তৈরি করেছেন তাপস কন্যা সোহিনী পাল

“দাদার কীর্তি” ছবির মাধ্যমে বলিউডে আত্মপ্রকাশ তাপস পালের। প্রসেনজিৎ, চিরঞ্জিত, এর সাথে পাল্লা দিয়ে দাপিয়ে সিনেমা করেছেন একটি সময়। এবং নিজের অভিনয় দক্ষতার মাধ্যমে দর্শকের মনে অনেক বড় জায়গা তৈরি করেছিলেন। ২০২০ সালের ১৮ই ফেব্রুয়ারি তাপস পাল ইহলোক থেকে পরলোকে গমন করেন। ১৯৮৫সালে ইন্দ্রানী পালের সঙ্গে তাপস পালের বিবাহ হয়েছিল। এবং তাদের একটি কন্যা সন্তান আছে। তার নাম সোহিনী পাল।

বাবা মারা যাওয়ার পরে বর্তমানে মাকে নিয়ে সোহিনী পালের সংসার। বাবার মতন সোহিনী ও কিন্তু অভিনয় জগতের মেয়ে। ২০০৪ সাল থেকে তিনি অভিনয় জগতে রয়েছেন। কৌশিক গাঙ্গুলির ছবি “জ্যাকপট” সিনেমায় তিনি অভিনয় করেছেন। বাবাকে ভীষণ ভালোবাসেন সোহিনী। বাবার সঙ্গে মুখের অনেকটা মিল আছে তার। মুম্বাইয়ে তাপস পাল যখন তার মেয়ের সাথে থাকতেন তখন তিনি মেয়েকে নিজে হাতে রেঁধে খাওয়াতেন।

ব্রেকফাস্ট বানিয়ে নিজের মেয়েকে খাইয়ে দিতেন মেয়েকে। একদিন সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছিলেন আমার পাখির মতন টুকটুক করে কথা বলে। শেষ জীবনে তাপস পাল মুম্বাইতে চিকিৎসার অধীনে ছিলেন। বাবার সমস্ত কাজ বাবাকে দেখাশোনা সমস্ত তার মেয়ে সোহিনী পাল ই করতেন।