জানুন এই বলিউড অভিনেত্রীদের কথা যারা বাংলা সিনেমা দিয়েই অভিনয় শুরু করেছিলেন

27

হিন্দি ইন্ডাস্ট্রি অর্থাৎ বলিউড-টলিউডের থেকে অনেকটাই এগিয়ে থাকলেও বলিউডের বহু সংগীতশিল্পী, অভিনেতা-পরিচালক এমনকি চলচ্চিত্র নির্মাতা উঠে এসেছে আমাদের এই বাংলা থেকে। বাংলা থেকেই তারা তাদের কর্ম জীবন শুরু করেছিলেন। তেমনি ৮ জন অভিনেত্রীর কথা উল্লেখ করা হয়েছে যারা জীবনের প্রথম ছবি করেছিলেন এই বাংলা থেকেই।

জয়া বচ্চন: সত্যজিৎ রায়ের ছবি মহানগর সিনেমা প্রথম অভিনয় করার সুযোগ পেয়েছিলেন জয়া বচ্চন।

শর্মিলা ঠাকুর: সত্যজিৎ রায়ের অপুর সংসার এ সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় এর বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন শর্মিলা ঠাকুর। বলা যায় এখান থেকেই তার অভিনয় জগতের জয়যাত্রা শুরু হয়েছিল।

রাখি গুলজার: কিংবদন্তি অভিনেত্রী রাখি গুলজার তার প্রথম সিনেমা বধূবরণ এর মাধ্যমে ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়ে ছিলেন। পরিচালক দিলীপ রায়ের বাংলা ছবির মাধ্যমেই তিনি প্রথম অভিনয় জগতে পদার্পণ করেছিলেন।

বিদ্যা বালান: আমরা অনেকেই জানি না বাংলা সিনেমা ভালো থেকো, সিনেমার হাত ধরে প্রথম বড় পর্দায় অভিনয় করেছিলেন বিদ্যা বালান। চরিত্রের নাম ছিল আনন্দি। জাতীয় পুরস্কার পেয়েছিলেন এই সিনেমা করে বিদ্যা বালান। বাংলা সিনেমার সঙ্গে তাঁর গভীর রয়েছে তিনি তা বারবার প্রকাশ করেছেন সংবাদমাধ্যমের সামনে।

রানি মুখোপাধ্যায়: আমরা হয়তো সকলেই জানি প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় বিপরীতে বিয়ের ফুল সিনেমা তে প্রথম অভিনয় করেছিলেন রানী মুখার্জি। এই সিনেমাতে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছিল সব্যসাচী চট্টোপাধ্যায় এবং ইন্দ্রানী হালদারকে।

কঙ্কনা সেন শর্মা: অপর্ণা সেনের কন্যা কঙ্কনা সেন শর্মা পরিচালক সুব্রত সেনের এক যে আছে কন্যা, সিনেমাতে মুখ্য অভিনয় করেই বড় পর্দায় প্রথম পা রেখেছিলেন। এ সিনেমায় তার বিপরীতে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছিল সব্যসাচী চট্টোপাধ্যায়কে।

রাধিকা আপ্তে: মারাঠি অভিনেত্রী রাধিকা আপ্তে অনিরুদ্ধ রায়চৌধুরির অন্তহীন সিনেমাতে দুর্দান্ত অভিনয় করে প্রথম অভিনয় জগতে পদার্পণ করেছিলেন। এ সিনেমাতে তার সঙ্গে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছিল অপর্ণা সেন এবং রাহুল বোসকে।

সোহা আলী খান: শর্মিলা ঠাকুরের কন্যা সোহাগ আলী খানের বড় পর্দায় জয়যাত্রা শুরু হয়েছিল ইতি শ্রীকান্ত সিনেমার হাত ধরে। ২০০৪ সালে মুক্তি পেয়েছে এই সিনেমা।