জানুন এই ৫ ফ্লপ অভিনেতা সম্পর্কে যারা নিম্নমানের অভিনয় করেও বলিউডে টিকে আছে

8
জানুন এই ৫ ফ্লপ অভিনেতা সম্পর্কে যারা নিম্নমানের অভিনয় করেও বলিউডে টিকে আছে

নেপটিজম এর জন্য বলিউড প্রায় তীব্র কটাক্ষের শিকার হয়েছে বহুবার। নিজেদের চেষ্টা, কঠিন পরিশ্রম এরপরও অনেক অভিনেতা শুধুমাত্র নেপটিজম এর জন্য নিজেদের জায়গা তৈরি করতে পারেনা। এমন উদাহরন অসংখ্য। আজ এমনই ৫ ফ্লপ অভিনেতার নাম বলব যারা তাদের নিম্নমানের অভিনয় করেও বলিউড এ টিকে আছে।

১। হিমেশ রেশ্মিয়া- গায়কের সাথে সাথে বেশ কিছু ছবিতে হিমেশ কে অভিনয় করতে দেখা যায়। ২০০৭ সালে তার প্রথম ছবি আপ কা সুরুর। গায়ক হিসেবে হিমেশ ভাল হলেও অভিনেতা হিসেবে তার খ্যাতি করা যথেষ্ট কঠিন। এরপর দম দম, তেরা সুরুর প্রভৃতি ছবিতে অভিনয় করলেও সব ছবি তার ফ্লপ হয়।

২। সহেল খান- সালমান খানের ভাই সহেল খান ২০০২ maine dil tujhko diya ছবির মাধ্যমে অভিনয় জগতে পা রাখেন।এরপর আর অনেক ছবিতে তিনি অভিনয় করেন তবে সব প্রচেষ্টায় তার বিফলে গেছে। সালমানের সঙ্গে তার পার্থক্য আকাশ পাতাল।

৩। জাকি ভাগনানি- ফালতু ছবিতে অভিনয় করা এই অভিনেতার অভিনয় যে খুব একটা ভাল তা বলা যায়না। তিনি প্রযোজক বাশু ভাগনানির ছেলে। হয়ত সেই কারনেই এসত্তেও ছবিতে এখন অভিনয় কর চলছেন। তার অভিনেত কিছু সিনেমা হল আজব গাজব লাভ, মিত্র প্রভৃতি।

৪। তুষার কাপুর- জিতেন্দ্রের ছেলে ও একতা কাপুর এর ভাই হলেন তুষার কাপুর ।অভিনয়ে খারাপ হওয়া সত্ত্বেও এই সুযোগেই অভিনয়ে সুযোগ পেয়েছেন তিনি বলা বাহুল্য। তবে তার অভিনেত গোলমাল এর সিরিজের বিকল্প নেই বলা চলে।

৫। অভিষেক বচ্চন- অমিতাভ বচ্চন এর কথা নতুন ভাবে বলার কিছুই নেই। কিন্তু ছেলের আঙ্গুলের ও যোগ্য হননি অভিশেক।তার অভিনেত শুধুমাত্র গুরু ছবিটি সবার মন কেড়েছিল। কিন্ত এরপর তার থেকে আশানুরূপ ফল পাওয়া সম্ভব হয়নি। শুধু মাত্র বাবার নামের জোরে তিনি টিকে রয়েছেন বলা চলে।