সাংসারিক সুখ সমৃদ্ধি এবং আর্থিক উন্নতির জন্য সুপারির এই ব্যবহার জেনে নিন

11
সাংসারিক সুখ সমৃদ্ধি এবং আর্থিক উন্নতির জন্য সুপারির এই ব্যবহার জেনে নিন

আপনার কি আর্থিক মন্দা চলছে? বা উপার্জন করছেন অনেক কিন্তু তা ধরে রাখতে পারছেন না! আপনি পুজোয় সুপারি ব্যবহার করছেন তো ? হ্যাঁ, ঠিকই শুনেছেন সুপারির কথাই বলা হচ্ছে। পূজায় সুপারি ব্যবহার করলে ফিরতে পারে আপনার ভাগ্য।

সুপারি এই মূলত ফিলিপিন্স বা মালয়েশিয়ায় পাওয়া যায় এছাড়া ভারত, নেপাল, বাংলাদেশ, মায়ানমার, পাকিস্তান, ইন্দোনেশিয়া, ফিলিপাইন প্রভৃতি দেশে চাষ করা হয়। মূলত বর্ষাকালে এই বীজ মাটির নিচে বপন করা হয়। লোনা মাটিতে সুপারি চাষ খুব ভালো হয়।

আনুমানিক 3 মিটার দূরত্বে এক বছর বয়সী সুপারি চারা লাগিয়ে বাগান প্রস্তুত করলে ফলন ভালো হয়। ৬-৭ বছর বয়স থেকে ফলন হওয়া শুরু করে। কিন্তু ১০ থেকে ১২বছর বয়সী গাছের ফলন খুবই ভালো হয়। সুপারি গাছের বাগানে আরও অনেক বড় বড় গাছ থাকলে যদি বাগানে ছায়া পড়ে তাহলে ফলন খুব একটা ভালো হয় না।

আমরা জানি লক্ষ্মীপুজোয় পান-সুপারি লক্ষ্মীদেবীর খুবই পছন্দের দেবী তাতে প্রসন্ন হন। যেখানে টাকা-পয়সা থাকে সেখানে যদি সুপারি রেখে দেওয়া হয় তাহলে পরে দেবী প্রসন্ন হন এবং অর্থবৃদ্ধি ঘটে। এছাড়া যদি একটি সবুজ কাপড়ের মধ্যে কিছুটা আতপ চাল, কাঁচা হলুদ এবং সুপারি রেখে ব্যবসার স্থানে রাখা হয় তাহলে ব্যবসার উন্নতি ঘটে। এছাড়া সিদ্ধিদাতা গণেশের পুজো কেউ যদি সুপারি ব্যবহার করা হয় তাহলে শুভ ফল ঘটে।

এছাড়াও আপনি একটি সাদা কাপড়ের ওপর স্বস্তিক চিহ্ন এঁকে তাতে সুপারি, কিছুটা আতপ চাল এবং কাঁচা হলুদ রেখে ঘরে ঢুকতে দরজার কিছুটা উঁচু তে যেখানে হাতের নাগাল পাওয়া যাবে না সেখানে বেঁধে রেখে দিলে সংসারের সুখ সমৃদ্ধি বজায় থাকবে এবং আর্থিক উন্নতি ঘটবে ।

জ্যোতিষশাস্ত্রে এই সুপারির অনেক গুণাবলী রয়েছে। শাস্ত্র অনুযায়ী মনে করা হয় এই সুপারি দুর্ভাগ্য কে সৌভাগ্য পরিণত করে দিতে পারে। এছাড়া ব্যবসায় উন্নতি, সার্বিক বৃদ্ধি, আর্থিক মন্দা থেকে লাভ পাওয়া যায় এবং মানসিক শান্তি বজায় থাকে। আপনি যদি পুজোয় সুপারি ব্যবহার করে না থাকেন তবে এখন থেকে আর্থিক উন্নতি এবং সাংসারিক সুখ সমৃদ্ধির জন্য অবশ্যই পুজোয় সুপারির ব্যবহার করুন।