জানুন দেবসায়নী একাদশীর মাহাত্ম্য কথা

12
জানুন দেবসায়নী একাদশীর মাহাত্ম্য কথা

বছরের বারো মাসে রয়েছে মোট চব্বিশটি একাদশী তিথি। সমস্ত একাদশীই খুব ঐকান্তিকতার সঙ্গে পালন করা হয়। সামনেই আসছে দেবসায়নী একাদশী। আষাঢ় মাসের শুক্ল পক্ষের একাদশীকে সাধারণত ‘দেবসায়নী একাদশী’ বা ‘সায়নী একাদশী’ বলা হয়। তিথি হিসেবে সব একাদশীরই আলাদা আলাদা গুরুত্ব রয়েছে। এই একাদশীর অন্য আরও অনেক নাম রয়েছে – ‘পদ্ম একাদশী’, ‘আষাঢ়ী একাদশী’, ‘হরিসায়নী একাদশী’।

দেবসায়নী একাদশীর মাহাত্ম্য হল এই যে, এই তিথিতে ভগবান বিষ্ণু ঘুমোতে যান, এবং ঠিক চারমাস পরে ‘প্রবোধিনী একাদশী’তে তিনি ঘুম থেকে জাগ্রত হন।

জগন্নাথের রথযাত্রার ঠিক পরেই দেবসায়নী একাদশী। সাধারণত ইংরাজী মাসের জুন বা জুলাইতে এই তিথি পড়ে। দেবসায়নী একাদশী থেকেই হিন্দি ক্যালেন্ডারে ‘চতুর্মাস’ নামক পর্বের শুরু।