লক্ষ্মী পুজোর দিন ভুলেও করবে না এই কাজ গুলি, করলেই বিপদ

33
লক্ষ্মী পুজোর দিন ভুলেও করবে না এই কাজ গুলি, করলেই বিপদ

মা লক্ষ্মীর কৃপা যার ওপর থাকে তার যেমন অর্থের অভাব হয়না তেমনি তার সংসারেও কোন বিপদ প্রবেশও করতে পারেনা। সাধারণভাবে আর্থিক স্বচ্ছলতা এবং উন্নতির জন্য মা লক্ষ্মীর প্রত্যেক বাড়িতে বাড়িতে করা হয়ে থাকে। প্রত্যেক পুজোই মন থেকে করা হলে তার ফল অনেকই ভালো হয়।

অনেকের মতে লক্ষ্মী পুজো করলেই লক্ষ্মী মা খুশি হয়ে যাবেন এবং সেই সংসারে অর্থের আর কোন সমস্যা থাকবে না, কিন্তু এরকম ভাবাটা একদমই বৃথা কারণ, কথায় আছে মন থেকে কোন কিছু করা হলে সেটার ফল একদিন না একদিন প্রত্যেকটি মানুষই পাবেন, ঠিক তেমনি মা লক্ষ্মীর পুজো জাঁকজমকপূর্ণ না করে যদি তাকে মন দিয়ে ডাকা হয় তবে মা তার প্রতি অবশ্যই তিনি কৃপা দৃষ্টি রাখবেন।

যে সকল মানুষের বা পরিবারের জীবনে অর্থের অভাব আছে, সেই অভাবকে অনেকেই বলে থাকেন লক্ষীর কোপ।

আমরা কেউই সঠিকভাবে জানি না যে আসলে লক্ষ্মীর কোপ আসলে কি এবং কেনইবা এরকম হয়।

মা লক্ষ্মীর পুজোয় কিছু ভুল-ত্রুটি হলেও এই রকম লক্ষ্মীর কোপ আমাদের সকলের জীবনে পড়তে পারে তাই যে সমস্ত কাজ লক্ষ্মী পুজোর সময় করা উচিত না আসুন সেগুলো একটু জেনে নি।

লক্ষ্মীপূজোতে কখনোই তুলসী পাতা ব্যবহার করা উচিত নয়। তুলসী যেহেতু নারায়ণ ঠাকুরের খুব প্রিয় এবং এই তুলসী শীলার সঙ্গে আটকে থাকার জন্য নারায়ণের সঙ্গে তুলসীর বিয়ে হয়ে যায়, এক কথায় বলা যায় তুলসী, লক্ষ্মী মায়ের সতীন।

মা লক্ষ্মীর আরাধনা করার সময় সব সময় তাকে নিবেদন করা প্রসাদ দক্ষিণ দিকে রাখবেন।

খেয়াল রাখবেন যাতে লক্ষীকে নিবেদন করা প্রসাদ যেন কখনোই নষ্ট না হয়।

মা লক্ষ্মী বিবাহিত হওয়ার কারণে তাকে লাল এবং গোলাপী রঙের ফুল দিয়ে আরাধনা করা উচিত। মায়ের আরাধনায় কখনোই সাদা ফুল ব্যবহার করা উচিত নয়।

মা লক্ষ্মীর আরাধনার সময় সব সময় লাল রঙের মোমবাতি জ্বালানো উচিত, যদি লাল রঙের না থাকে তবে আপনি তার বদলে প্রদীপ ব্যবহার করতে পারেন।