দেবী লক্ষ্মীর পছন্দের এই ফুল গাছ বাড়িতে লাগালে লক্ষ্মী কখনো অচলা হবেন না

5
দেবী লক্ষ্মীর পছন্দের এই ফুল গাছ বাড়িতে লাগালে লক্ষ্মী কখনো অচলা হবেন না

আমাদের বাঙালি পরিবারে দেবী লক্ষ্মীর আরাধনা সবচেয়ে বেশি করা হয়। সব সময় তাঁকে তুষ্ট রাখতে চায় পরিবারের সকলেই। কারণ দেবী লক্ষ্মী হলেন ধন – সম্পদের, ও সৌভাগ্যের দেবী। তাই যাতে সংসারে অভাব অনটন না দেখা দেয় তার জন্যই বিশেষ করে উপাসনা করা হয় তাঁর।

বেশীরভাগ বাড়িতেই দেখা যায় প্রতি বৃহস্পতিবার লক্ষ্মী দেবীর পূজা পাঠ করতে। এছাড়াও কোজাগরী লক্ষ্মী ও দীপাবলির সময় দীপান্বিতা লক্ষ্মী পূজাও করতে দেখা যায়। কিন্তু লক্ষ্মী দেবীকে তুষ্ট করার আরো একটি উপায় হলো তাঁর পছন্দের ফুল। তিনি বেশ কিছু ফুল বা গাছ পছন্দ করেন যা বাড়িতে লাগলে তাঁর বাড়িতে লক্ষ্মী কখনো অচলা হবেন না, বলেই মনে করা হয়।

ক্রাসুলা গাছ:- এই ক্রাসুলা গাছ বলতে মূলত মানি প্লান্ট, লাকি ট্রি, ফ্রেন্ডশিপ ট্রি, ও জেড ট্রি এই গাছ গুলিকে বলা হয়। অনেকেই মানেন যে এই গাছ গুলি বাড়িতে থাকলে কখনো অর্থের অভাব হয়না গৃহে। বাস্তু শাস্ত্র মতে, এই গাছ গুলি অত্যন্ত শুভ। এই গাছ গুলো লাগালে অনেক নতুন উপায়ে অর্থ লাভ হয়। তাতে ব্যাক্তির মন মেজাজ ও ভালো থাকে। ফলে সংসারে শান্তি বজায় থাকে।

লক্ষণা গাছ :- এই লক্ষনা গাছের একটা বিশেষ মাহাত্ম্য আছে। বলা হয়, এই গাছের সাথে লক্ষ্মী দেবীর সরাসরি যোগাযোগ আছে। অর্থাৎ এই গাছ দেবীর খুবই প্রিয়। তাই এই গাছ বাড়িতে লাগলে লক্ষ্মী দেবী তাঁর বাড়িতে অবশ্যই আসেন। এই গাছটির পাতা অনেকটা পান পাতার মতো বা অশ্বত্থ পাতার মতন দেখতে।

এছড়াও রয়েছে শিউলি গাছ, দেবীর শিউলি ফুল খুবই প্রিয়। এই ফুলকে ইতিবাচক শক্তির অধিকারী বলে মনে করা হয়। যে বাড়িতে এই গাছ থেকে তাদের বাড়িতে সুখ শান্তির অভাব হয় না। বাস্তু মতে, এই গাছ বাড়িতে লাগালে লক্ষ্মী দেবী প্রসন্ন হন এবং সেই বাড়িতে নিজের পদধূলি দেন। এই ফুল দিয়ে লক্ষ্মী দেবীর পূজা যদি করা হয় তাহলে আরো ভাল বলেও মনে করা হয়। কিন্তু এই গাছ লাগানোর কিছু নিয়ম আছে।
যেমন – এই শিউলি ফুল গাছ সোমবার ও বৃহস্পতি বার লাগানো উচিত। এই দিন গুলিতে এই গাছ লাগালে তা অধিক কার্যকরী হয়।
শুধু তাই নয় শিউলি গাছ লাগানোর দিক নির্বাচন ও গুরুত্বপূর্ণ। সঠিক দিকে এই গাছ না লাগালে লক্ষ্মী দেবী বিরূপ হন তাই বাস্তু মতে উত্তর – পূর্ব দিক করেই শিউলি গাছ লাগানো উচিত বলে মনে করা হয়।