“তাড়িয়ে দিল পদ্ম, ফুলটুসি জব্দ” বৈশাখী বন্দোপাধ্যায়কে তীব্র কটাক্ষ করলেন কুনাল ঘোষ

13

রাজনীতির আড়ালে রাজনৈতিক নেতা-নেত্রীদের একে অপরের প্রতি কাদা ছোড়াছুড়ির পর্ব অব্যাহত। তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষকে প্রকাশ্যে “মুখ পোড়া হনুমান” বলে কটাক্ষ করেছিলেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। তার পরিপ্রেক্ষিতে এবার শোভন চট্টোপাধ্যায় এবং তার বিশেষ বান্ধবী বৈশাখী বন্দোপাধ্যায়কে তীব্র কটাক্ষ করলেন কুনাল ঘোষ। বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়কে তিনি “গ্ল্যাক্সো বেবি” বলে কটাক্ষ করেছেন।

এখানেই শেষ নয়, বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়কে উদ্দেশ্য করে কুনালের তীব্র কটাক্ষ, “তাড়িয়ে দিল পদ্ম, ফুলটুসি জব্দ”। প্রসঙ্গত, একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগে শোভন চট্টোপাধ্যায় এবং বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় তৃণমূল শাসক শিবির ছেড়ে বিজেপির গেরুয়া পতাকা হাতে তুলে নেন। শুধু তাই নয়, দলবদলের পর তৃণমূল সুপ্রিমোর বিরুদ্ধে তীব্র সমালোচনা করেছিলেন তারা। বর্তমানে তারা গেরুয়া শিবিরের ছত্রছায়া থেকে বেরিয়ে এসেছেন।

একুশের নির্বাচনে তৃণমূলের বিরুদ্ধে তারা স্লোগান তুলেছিলেন, “ঘরে ঘরে পদ্ম, তৃণমূল জব্দ”! সেই স্লোগানের পরিপ্রেক্ষিতে এবার তাদের বিঁধলেন কুনাল ঘোষ। নির্বাচনের আগে টিকিটের আশায় তৃণমূল শিবির ছেড়ে গেরুয়া শিবিরের দিকে পা বাড়ালেও বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়কে টিকিট না দেওয়ার কারণে গেরুয়া শিবিরের সঙ্গে মনোমালিন্য হয় তাদের।

নির্বাচনের পর আবার বিজেপির বিরুদ্ধেই সুর চড়াতে শুরু করেন তারা। যার ফলাফলস্বরূপ বিজেপির সঙ্গে তাদের দূরত্ব বাড়তে থাকে। এখন আবার সিবিআই এর কবলে শোভন চট্টোপাধ্যায়। নারদ কান্ডতে জড়িত থাকার অপরাধে আপাতত নজরবন্দি রয়েছেন তিনি। ফলে স্বভাবতই বিজেপির সঙ্গে তাদের কার্যত যেটুকু যোগাযোগ ছিল তাও ছিন্ন হয়েছে।