জানুন কি সেই সবজি, যার দাম প্রতি কেজি ২৫ থেকে ৩০ হাজার টাকা

33
জানুন কি সেই সবজি, যার দাম প্রতি কেজি ২৫ থেকে ৩০ হাজার টাকা

চলতি বছরই যেভাবে বাজারদর আগুন হয়ে গেছে, তাতে রীতিমতো মাথায় হাত মধ্যবিত্ত বাঙ্গালীদের। এমনিতেই কোনো রকম সবজির দর যদি কেজিতে ১০০ থেকে ২০০ টাকা হয় তাহলেই মনে করা হয় যে কত অর্থ ব্যয় করে সেটাকে কেনা হল। তাহলে যদি কোন সবজির দর কেজিতে হাজার টাকা হয় তাহলে কি করবেন বলুন তো? হ্যাঁ ভারতবর্ষের বুকে এমন একটি সবজি রয়েছে যার বাজার দর শুনে রীতিমতো হতবাক হয়ে যেতে পারেন আপনি। নিঃসন্দেহে এটি এখনো পর্যন্ত ভারতবর্ষের সবথেকে ব্যয় বহুল সবজি।

চলুন জেনে নেওয়া যাক এই সবজি সম্পর্কে কিছু তথ্য।

এই সবজিটির নাম হল গুচ্চি, এটি একটি বুনো মাশরুম প্রজাতির সবজি। ভারতের উত্তর সীমান্ত হিমালয়ের পাদদেশে পাওয়া যায় এটি। বাজারের দাম এখনো পর্যন্ত ২৫ থেকে ৩০ হাজার টাকা প্রতি কেজি। ভারতবর্ষে এই সবজিটি কে খুব একটা দেখতে না পাওয়া গেলেও বিদেশে এর বিশেষ চাহিদা রয়েছে। এই সবজির দাম শুনে অনেকেই কৌতুক করে বলেন যে,” এই সবজি খেতে হলে তো ব্যাংক থেকে ঋণ নিতে হয়”।

এই গুচ্ছি হল একপ্রকার মহা ঔষধি। এর গুনাগুন গুলি হল, এটি খেলে হৃদরোগের মুক্ত হওয়া যায়। এছাড়া এই সবজি শরীরে আরও বিভিন্ন ধরনের পুষ্টির যোগান দেয়। গুচ্চি এক ধরনের মাল্টিভিটামিন প্রাকৃতিক ঔষধ। সবজিটি কিন্তু বারো মাস পাওয়া যায় না। সাধারণত ফেব্রুয়ারি মাস থেকে এপ্রিলের মধ্যে এটিকে পাওয়া যায়, তখন বড় বড় সংস্থা এবং হোটেলগুলি এগুলোকে কিনে রাখে।

বিশেষত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স, ইউরোপ, সুইজারল্যান্ড এবং ইতালির মানুষেরা এদিকে খেতে খুবই পছন্দ করেন। এই বুনো সবজি সংগ্রহ করার জন্য জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পাহাড়ের খুব উঁচুতে উঠতে হয় মানুষকে। সাধারণত বৃষ্টির সময় অধিকার সংরক্ষণ করা হয় এবং গরমকালে এটিকে শুকনো করা হয়।

পশ্চিমের দেশ সেরা পাকিস্তানের হিন্দুকুশ পাহাড়েও এই সবজি টি জন্মায়। সে দেশের লোকেরা এটিকে শুকিয়ে বিক্রি করে বিদেশে। এইসব সম্পর্কে অনেক কাহিনী আছে। কথিত আছে যে, যখন পাহাড়ের উপর বজ্রপাতসহ ঝড় বৃষ্টি হয়, তখন নাকি এই বুনো মাসুম প্রজাতির গুচ্চি নামক সবজিটির উৎপন্ন হয়। তাই হয়তো বর্ষাকালে পাহাড়ের উপর প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে এই সবজিটি সংগ্রহ করতে হয়।